২৩ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

মেসিই সর্বকালের সেরা ॥ গার্ডিওলা


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ গুরু-শিষ্যের লড়াইয়ে জিতলেন কে? অনেকেই বলছেন পেপ গার্ডিওলা ও লিওনেল মেসি দু’জনই জিতেছেন। আবার কেউ কেউ বলছেন, জিতেছেন আসলে মেসি। বাস্তবিক দিক দিয়ে দেখলে আসলে জয় হয়েছে বার্সিলোনা জাদুকরেরই। কেননা গার্ডিওলার বেয়ার্নকে পেছনে ফেলে চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ফাইনালে উঠেছে মেসির বার্সা। তাছাড়া পরশু ম্যাচ শেষে স্বয়ং গার্ডিওলাই বলেছেন, মেসি তার দেখা সর্বকালের সেরা ফুটবলার।

চ্যাম্পিয়ন্স লীগের সেমিফাইনালের দ্বিতীয় লেগে বার্সিলোনাকে হারানোর পরও প্রথম লেগে বড় হারের কারণে বিদায় নিতে হয়েছে বেয়ার্নকে। ম্যাচ শেষে বাভারিয়ান কোচ পেপ গার্ডিওলা বলেন, সেই (মেসি) সর্বকালের সেরা ফুটবলার। আমি তাকে পেলের সঙ্গে তুলনা করি, তার খেলা দেখার সৌভাগ্য হওয়ায় আমি খুব খুশি। এবারের চ্যাম্পিয়ন্স লীগে মেসি এখন পর্যন্ত করেছেন সর্বোচ্চ ১০ গোল। বার্সাকে অষ্টমবারের মতো ইউরোপিয়ান শ্রেষ্ঠত্বের আসরে ফাইনালে নিয়ে যাওয়ার পেছনে আর্জেন্টাইন তারকাই মূল কারিগর হিসেবে কাজ করেছেন। নিজের দুই বছরের মেয়াদে একবারও বেয়ার্নকে চ্যাম্পিয়ন্স লীগের শিরোপা উপহার দিতে পারেননি গার্ডিওলা। অথচ ২০০৮ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত বার্সিলোনায় চার বছরের দায়িত্বে ২৭ বছর বয়সী মেসিকে নিয়ে দুইবার চ্যাম্পিয়ন্স লীগের শিরোপা জিতেছেন গার্ডিওলা। তারকা এই কোচের মতে, মেসি এখনও তার সেরা ফর্মে আছে। নিজে বার্সায় থাকার সময়ও একই ফর্মে ছিল মেসি।

সর্বশেষ ২০১১ সালে গার্ডিওলার অধীনে বার্সিলোনার হয়ে শিরোপা জিতেছেন মেসি। এবারের লা লীগায় এখন পর্যন্ত তিনি ৪০ গোল করেছেন। চ্যাম্পিয়ন্স লীগেও অপ্রতিরোধ্য। বেয়ার্ন কোচ বলেছেন, যোগ্য দল হিসেবেই ফাইনালে গেছে বার্সা। আর ফাইনাল শেষে শিরোপা শোভা পাবে তাদের শোকেসেই। গার্ডিওলা বলেন, বার্সিলোনা যখন বল পায় তখন তারা শক্তিশালী দলে পরিণত হয়। আশা করছি বার্লিনে তারা পঞ্চমবারের মতো ইউরোপিয়ান কাপের শিরোপা জিতবে। আমরা সবকিছুই চেষ্টা করেছি। কিন্তু দলে বেশ কয়েকটি ইনজুরি সমস্যা ছিল। গত দুই মাস অনেক সমস্যা নিয়ে একটি ক্লাব যখন এতদূর পর্যন্ত যায় তখন তারা প্রশংসা পেতেই পারে। আমার খেলোয়াড়দের পারফর্মেন্সে আমি সন্তুষ্ট। বেয়ার্নে দুই তারকা উইঙ্গার আরিয়েন রোবেন ও ফ্রাঙ্ক রিবেরি ছাড়াও ডিফেন্ডার ডেভিড এ্যালাবা ও হলগার বাস্টুবার ইনজুরির কারণে খেলতে পারেননি। এরপরও বার্সাকে হারানোকেই তৃপ্তি হিসেবে দেখছেন গার্ডিওলা।

চ্যাম্পিয়ন্স লীগ থেকে ছিটকে পড়ার কারণে চলমান মৌসুমে বেয়ার্নকে শুধু বুন্দেস লীগার শিরোপা নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হচ্ছে। গার্র্ডিওলা বলেন, বেয়ার্নের খেলোয়াড়রা অনেক সময়ই জানে না তারা কতটা ভাল। এখন আমি লীগের শিরোপা উৎসব করতে চাই, ছুটিতে যেতে চাই। আশা করছি পরের মৌসুমটা আরও ভালভাবে কাটাতে পারব। অনেক সমস্যার মধ্যেও আমরা যে ভেঙ্গে পড়িনিÑ এটাই আমাদের সবচেয়ে বড় কৃতিত্ব।

এদিকে পরশুর ম্যাচে অনন্য রেকর্ড গড়েছেন বার্সার মিডফিল্ডার জাভি হার্নান্দেজ। আন্দ্রেস ইনিয়েস্তার বদলি হিসেবে নেমে প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে চ্যাম্পিয়ন্স লীগে ১৫০ ম্যাচ খেলার মাইলফলক স্পর্শ করেন অভিজ্ঞ এই মিডফিল্ডার। ছাড়িয়ে যান রিয়াল মাদ্রিদের স্প্যানিশ গোলরক্ষক ইকার ক্যাসিয়াসকে। মাইলফলকের ম্যাচে দ্বিতীয়ার্ধের ৭৫ মিনিটে স্বদেশী ইনিয়েস্তার বদলি হিসেবে মাঠে নামেন জাভি। অবশ্য বুধবার রাতেই জুভেন্টাসের বিরুদ্ধে ম্যাচে জাভির পাশে নাম লেখানোর সুযোগ পেয়েছেন ক্যাসিয়াস। নিজের ক্যারিয়ারে ক্যাটালানদের হয়ে এখন পর্যন্ত তিনটি চ্যাম্পিয়ন্স লীগের শিরোপা জিতেছেন জাভি। এবার বার্লিনের ফাইনাল জিতে চতুর্থ শিরোপা জয়ের পালা। ১৯৯৮ সালে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের বিরুদ্ধে জাভির চ্যাম্পিয়ন্স লীগে অভিষেক ঘটে। সর্বোচ্চ ম্যাচ খেলার দিক দিয়ে জাভি-ক্যাসিয়াসের পর তৃতীয় স্থানে আছেন রিয়ালের সাবেক কিংবদন্তি রাউল গঞ্জালেস। স্প্যানিশ স্ট্রাইকার ১৪২টি ম্যাচ খেলেছেন। ১৩৭ ম্যাচ খেলে চার নম্বরে আছেন ম্যানইউর কিংবদন্তি রায়ান গিগস। ১২৫ ম্যাচ খেলা এসি মিলানের কিংবদন্তি মিডফিল্ডার ক্লারেন্স সিডর্ফ পঞ্চম স্থানে।