১৮ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

হজ এজেন্সিগুলোর স্মারকলিপি


স্টাফ রিপোর্টার ॥ সৌদি সরকারের বেঁধে দেয়া কোটার বাইরে হজে যেতে ইচ্ছুক নিবন্ধিত অতিরিক্ত ২৫ হাজার লোককে নিয়ে সৃষ্ট সঙ্কট নিরসনে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চেয়ে স্মারকলিপি দিয়েছে ক্ষতিগ্রস্ত এজেন্সিগুলো। রাজধানীর হাইকোর্ট মোড়ে কদম ফোয়ারা থেকে সোমবার ৫ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল প্রধানমন্ত্রী কার্যালয় অভিমুখে স্মারকলিপি দিতে রওয়ানা দেন। এর আগে ক্ষতিগ্রস্ত হজ এজেন্সির মালিকরা বেলা ১১টার আগেই জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জড়ো হন। সেখানে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ শেষে ইহরামের কাপড় পরে তেজগাঁওয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের দিকে রওয়ানা দেন তাঁরা। হাইকোর্ট মোড়ে কদম ফোয়ারার সামনে পুলিশ তাঁদের বাধা দেয়। সেখান থেকে ক্ষতিগ্রস্ত হজ এজেন্সিগুলোর আহ্বায়ক মাওলানা ফজলুর রহমানের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের প্রতিনিধি দল প্রধানমন্ত্রীকে স্মারকলিপি দিতে যান। প্রতিনিধি দলের অন্য সদস্যরা হলেন মুফতি আব্দুল কাদের মোল্লা, মুফতি নাসির উদ্দিন, শফিক উদ্দিন ও মাওলানা জাকারিয়া।

জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে মাওলানা ফজলুর রহমান বলেন, ২৫ হাজার হজযাত্রী নিয়ে যে সঙ্কট তৈরি হয়েছে এজন্য ধর্ম মন্ত্রণালয়ের কিছু অসাধু কর্মকর্তাই দায়ী। নিয়ম অনুযায়ী আগে মুয়াল্লিম ফি জমা দিয়ে এরপর নাম রেজিস্ট্রেশন করার কথা থাকলেও মন্ত্রণালয়ের কিছু কর্মকর্তার যোগসাজশে এর ব্যত্যয় ঘটায় চলমান সঙ্কটের সৃষ্টি হয়েছে।

২৫ হাজার হজযাত্রী নাম রেজিস্ট্রেশন করেও এবার হজে যেতে পারবেন কিনা এ নিয়ে সঙ্কট তৈরি হয়েছে। চলমান সঙ্কট সমাধানে তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করেন। তিনি বলেন, ইতোমধ্যে ডাটা এন্ট্রি করা হজযাত্রীদের পুলিশ ভেরিফিকেশন শেষ হয়েছে। কিন্তু এখন নাকি বিভিন্ন জেলায় এন্ট্রি করা অনেককে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। এতে প্রমাণ হয় বিপুলসংখ্যক ভুয়া লোক নাম রেজিস্ট্রেশন করেছেন।