২৪ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

প্রধান আসামি সেনা সদস্য শফিকুল সিলেট থেকে গ্রেফতার


নিজস্ব সংবাদদাতা, নড়াইল, ১১ মে ॥ নড়াইলে গৃহবধূকে গাছে বেঁধে নির্যাতন মামলার প্রধান আসামি সেনাসদস্য শফিকুল শেখকে সিলেট থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার সন্ধ্যায় শফিকুলকে গ্রেফতার করা হয়। নড়াইলের পুলিশ সুপার সরদার রকিবুল ইসলাম গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। রবিবার হাইকোর্ট গৃহবধূ নির্যাতনের ঘটনায় দায়ের করা মামলার আসামিদের ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে গ্রেফতারের নির্দেশ দেয়।

পুলিশ জানায়, গৃহবধূকে নির্যাতনের ঘটনায় গত ৫ মে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ববিতার স্বামী শফিকুল শেখসহ সাতজনকে আসামি করে লোহাগড়া থানায় মামলা দায়ের করেন ববিতার মা খাদিজা বেগম। এর আগে শফিকুলের দুই চাচা কালাম শেখ ও হিরু শেখকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

মামলার বিবরণে ও ববিতার বাবার বাড়ির লোকজনের বক্তব্য থেকে জানা যায়, গত ৩০ এপ্রিল সকাল ৭টার দিকে ববিতার শ্বশুরবাড়ি নড়াইলের শালবরাত গ্রামে একটি গাছের সঙ্গে বেঁধে ববিতার শরীরের বিভিন্ন স্থানে বেধড়ক লাঠিপেটাসহ নির্যাতন করা হয়। ববিতা জানান, স্বামী শফিকুলসহ তার বড় ভাই হাসান শেখ, বাবা ছালাম শেখ, মা জিরিন আক্তার, চাচা কালাম শেখ ও নান্নু শেখ, কাশিপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক আজিজুর রহমান আরজুসহ অন্যরা ববিতাকে গাছের সঙ্গে বেঁধে লাঠিপেটা করেন।

ববিতা জানান, তার স্বামী সিলেট সেনানিবাসের ৩৮ বেঙ্গলে কর্মরত ছিলেন। এ ঘটনার পর থেকে শ্বশুরবাড়ির লোকজন পালিয়ে যান। এদিকে নড়াইল সদর হাসপাতালে চার দিন চিকিৎসা শেষে নির্যাতিত গৃহবধূ ববিতা রবিবার নড়াইল সদর হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র নিয়ে গ্রামের বাড়ি এড়েন্দা এসে ওইদিন সন্ধ্যায় আবারও তিনি লোহাগড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হন।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: