১৯ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

পুুঁজিবাজারে সূচক বাড়ল চার শতাংশ


অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ দেশের পুঁজিবাজারে আবারো সুবাতাস বইতে শুরু করেছে। সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস রবিবারে প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ৯৩ ভাগ কোম্পানির দর বাড়ার কারণে সব ধরনের সূচক বেড়েছে প্রায় ৪ শতাংশ। সঞ্চয়পত্রের সুদ হার কমানো এবং রাজনৈতিক অস্থিরতা কমে যাওয়ার কারণে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীর সঙ্গে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের সক্রিয় হচ্ছে, যার কারণে ডিএসইর লেনদেন প্রায় ২৪ শতাংশ বেড়ে অবস্থান করছে পাঁচশ কোটি টাকার ওপরে। অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জও সূচক ও লেনদেন বেড়েছে।

বাজার পর্র্যালোচনায় দেখা গেছে, সকালে সূচকের বড় ধরনের উত্থান দিয়ে লেনদেন শুরু হয়। একইসঙ্গে বাড়তে থাকে লেনদেনের চাকা। সরকার জাতীয় সঞ্চয়পত্রের সুদের হার কমিয়ে দিচ্ছে, এতে বাজারে আগের তুলনায় বিনিয়োগ বাড়তে এমন আশা বিনিয়োগকারীদের মনে সঞ্চার হওয়ার পরেই লেনদেন ও সূচক বাড়তে থাকে। সারাদিন সূচকের বড় ধরনের উত্থানের পরে ডিএসইতে ৫২০ কোটি ৮১ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে; যা আগের দিনের চেয়ে ১০১ কোটি ৪৯ লাখ টাকা বেশি লেনদেন। আগের দিন এ বাজারে লেনদেন হয়েছিল ৪১৯ কোটি ৩১ লাখ টাকার শেয়ার। ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয় ৩০৯টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড। এর মধ্যে দর বেড়েছে ২৮৯টির, কমেছে ১৭টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩টি শেয়ারের দর।

সকালে সূচকে ইতিবাচক প্রবণতা দিয়ে শুরুর পরে ডিএসইএক্স বা প্রধান মূল্য সূচক ১৫৪ পয়েন্ট বা ৩ শতাংশ বেড়ে ৪ হাজার ২৭৭ পয়েন্টে অবস্থান করছে। ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ৩১ পয়েন্ট বা ৩ শতাংশ বেড়ে অবস্থান করছে এক হাজার ৪১ পয়েন্টে। ডিএস৩০ সূচক ৫৮ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৬১৭ পয়েন্টে।

ডিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে থাকা দশ কোম্পানি হলো - ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন এ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি, এসিআই ফরমুলেশনস, মবিল যমুনা বাংলাদেশ, সাইফ পাওয়ারটেক, ইফাদ অটোস, এসিআই লিমিটেড, শাহজিবাজার পাওয়ার কোম্পানি, আরএকে সিরামিকস, ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ড এবং খুলনা পাওয়ার কোম্পানি।

ডিএসইর লেনদেনের সেরা কোম্পানিগুলো হলো : ইসলামিক ফাইন্যান্স, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল, প্রাইম ফাইন্যান্স ১ম মিউচ্যুয়াল ফান্ড, তাকাফুল ইন্স্যুরেন্স, মেঘনা লাইফ, বেক্সিমকো ফার্মা, ঢাকা ইন্স্যুরেন্স, সুহৃদ ইন্ডাস্ট্রিজ, কর্ণফুলী ইন্স্যুরেন্স ও সানলাইফ ইন্স্যুরেন্স।

দর হারানোর সেরা কোম্পানিগুলো হলো : ৩য় আইসিবি, এসিআই ফর্মুলেশন, দুলা মিয়া কটন, জেমিনী সী ফুড, বার্জার পেইন্টস, রেকিট বেনকিজার, ম্যারিকো, এ্যাপেক্স ফুটওয়ার, স্টান্ডার্ড সিরামিক ও মডার্ন ডায়িং।

রবিবারে ঢাকার বাজারের মতো অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও সূচকের সঙ্গে লেনদেন বেড়েছে। পুরোদিনে ডিএসইতে মোট ৪৩ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এদিন সিএসই সার্বিক সূচক ৪৯২ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৩ হাজার ১৮৬ পয়েন্টে। সিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ২৪৬টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ২৩৭টির, কমেছে ৭টি এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২টির।

সিএসইর লেনদেনের সেরা কোম্পানিগুলো হলো : ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড, মোজাফফর হোসেন স্পিনিং, বাংলাদেশ সাবমেরিন কেবল কোম্পানি লিমিটেড, বিএসআরএম লিমিটেড, বেক্সিমকো, ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ড, মবিল যমুনা বাংলাদেশ, ইউনাইটেড এয়ার, শাহজিবাজার পাওয়ার ও এসিআই ফর্মুলেশন।