২১ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

চীন দ্বীপ নির্মাণ সম্প্রসারিত করছে ॥ পেন্টাগন


দক্ষিণ চীন সাগরের বিরোধপূর্ণ জলরাশিতে কৃত্রিম দ্বীপ নির্মাণ করতে চীনের রহস্যজনক তৎপরতা ব্যাপকভাবে সম্প্রসারণ করা হয়েছে। চীন ২০১৪ সালের শুরু থেকে এ পর্যন্ত ৮১০ হেক্টর (২,০০০ একর) ভূমি উদ্ধার করেছে। শুক্রবার মার্কিন কর্মকর্তারা এ কথা জানান।

একই সময়ে পেন্টাগন ওইসব দ্বীপ চীনের সামরিক অবকাঠামোকে শক্তিশালী করার লক্ষ্যে ব্যবহার করা হতে পারে বলে সতর্কবাণী উচ্চারণ করে এক রিপোর্ট প্রকাশ করেছে। খবর বিবিসি ও ফক্সনিউজের।

পেন্টাগনের এক নতুন রিপোর্টে বলা হয়, চীন স্প্যাটাল দ্বীপপুঞ্জের পাঁচটি ফাঁড়িতে ২০১৪ সালে ২০০ হেক্টর (৫০০ একর) ভূমি উদ্ধার করে। মার্কিন কর্মকর্তারা বলেন, তখন থেকে এ পর্যন্ত অপর ৬১০ হেক্টর (১,৫০০ একর) ভূমি উদ্ধার করা হয়।

রিপোর্টে বলা হয়, বেজিংয়ের দ্বীপ নির্মাণের চূড়ান্ত উদ্দেশ্য অস্পষ্ট রয়ে গেছে, কিন্তু এতে এ সম্ভাবনার কথাও বলা হয় যে, চীন দক্ষিণ চীন সাগরে এর প্রতিরক্ষা অবকাঠামো উন্নত করে প্রাকৃতিক অবস্থানের পরিবর্তন ঘটানোর চেষ্টা করছে। মার্কিন সেনাবাহিনী প্রথমে মার্চ মাসে তথাকথিত ‘ভূমি উদ্ধার প্রকল্পের জন্য চীনের সমালোচনা করে। যুক্তরাষ্ট্রের ব্যাখ্যায় বলা হয়, চীন জীবন্ত প্রবাল প্রাচীরগুলোর ওপর বালু পাম্প করে ঢালছে এবং তারপর সেগুলোর ওপর কংক্রিটের আস্তরণ দিচ্ছে। চীন দক্ষিণ চীন সাগরের প্রায় সমগ্র অংশই নিজের বলে দাবি করে থাকে। চীনের প্রতিবেশীরাও সাগরের বিভিন্ন অংশের মালিকানা দাবি করায় বিরোধ দেখা দিয়েছে। চীন বিভিন্ন স্থাপনা নির্মাণের জন্য কৃত্রিম দ্বীপ গড়ে তুলতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করছে বলে অন্যান্য দেশ অভিযোগ করে থাকে।