১৯ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৭ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

শিগগিরি রেলে ইতিবাচক পরিবর্তন চোখে পড়বে- রেলমন্ত্রী


স্টাফ রির্পোটার,নীলফামারী॥ রেলপথ মন্ত্রী মুজিবুল হক বলেছেন, বিএনপি শাসনামলে রেলপথকে কোন গুরুত্ব দেওয়া হয়নি। রেললাইন বন্ধ আর সংকোচন এবং রেলের জায়গা বে-দখল করা হয়েছিল। অথচ ২০১১ সালে আওয়ামী লীগ সরকার রেলপথ মন্ত্রণালয় গঠনের পর যুগান্তকারী উন্নয়ন পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে। তিনি বলেন, রেল উন্নয়নে বর্তমানে ৪৬টি প্রকল্পের কাজ চলছে। শিগগিরি রেলে ইতিবাচক পরিবর্তন চোখে পড়বে। তিনি আজ দুপুরে দেশের বৃহত্তম সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানা পরিদর্শনকালে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন,বিএনপির সময় রেলের জামি বেদখল হয়েছিল। এখন আর এক ইঞ্চি জায়গাও দখল করতে দেওয়া হবেনা। তবে জনস্বার্থে অপ্রয়োজনীয় জমি ব্যবহারের অনুমতি দেয়া হবে। দেশের রেল যোগাযোগ উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা নতুন নতুন রেলপথ স্থাপন করছি। আগামী রোজার ঈদে অতিরিক্ত যাত্রীসেবা দিতে সৈয়দপুর কারখানায় ৮৩টিরও বেশি রেলকোচ তৈরী হবে। এছাড়াও ভারত ও ইন্দোনেশিয়া থেকে বড় লাইনের (বিজি) জন্য ২৭০টি নতুন কোচ আমদানি করা হচ্ছে। যা দিয়ে অসংখ্য ট্রেন চালু করা হবে।

এর আগে মন্ত্রী দুপুরে সৈয়দপুর রেলওয়েতে মুক্তিযুদ্ধে কারখানার শহীদ কর্মকর্তা-কর্মচারীদের স্মৃতির উদ্দেশ্যে সম্মান জানাতে শহীদবেদীতে পুষ্পমাল্য প্রদান করেন । এ সময় মন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন স্থানীয় সাংসদ ও বিরোধীদলীয় হুইপ শওকত চৌধুরী, রেলপথ মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব মো. ফিরোজ সালাহ্উদ্দিন, রেলওয়ে মহাপরিচালক আমজাদ হোসেন, পশ্চিমাঞ্চল রেলের মহাব্যবস্থাপক খায়রুল আলম, অতিরিক্ত মহাপরিচালক (এডিজি) খলিলুর রহমান, প্রধান যন্ত্র প্রকৌশলী আব্দুল মতিন চৌধুরী প্রমুখ।

এর আগে সকালে দিনাজপুরের পার্বতীপুরে কেন্দ্রীয় লোকোমোটিভ কারখানা পরিদর্শন করেন রেল মন্ত্রী। পরিদর্শন শেষে তিনি কারখানার উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে মিলিত হন।