২৩ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ২ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

শিক্ষক অসীমের দুটি কিডনিই নষ্ট, প্রতিস্থাপনে সাহায্যের হাত বাড়ান


স্টাফ রিপোর্টার ॥ ঝালকাঠির ‘সেন্টার ফর মাস এডুকেশন ইন সায়েন্স’ এর সিনিয়র শিক্ষক অসীম কুমার রায়ের জীবন বাঁচাতে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিন। তাঁর দু’টি কিডনিই নষ্ট হয়ে গেছে। ডায়ালাইসিস করিয়ে তাঁকে বাঁচিয়ে রাখা হয়েছে। একমাত্র সন্তানের জীবন বাঁচাতে নিজের একটি কিডনি দিতে রাজি হয়েছেন তাঁর মা বেলা রানী। তবে ভারতে গিয়ে কিডনি সংযোজনের জন্য প্রয়োজন ৭ থেকে ৮ লাখ টাকা। কিন্তু রোগীর পরিবারের পক্ষে এই ব্যয়বহুল চিকিৎসা চালিয়ে যাওয়া সম্ভব হচ্ছে না। পরিবারটির আর্থিক অবস্থা ভাল না। চিকিৎসার পেছনে সহায় সম্বল হারিয়ে ইতোমধ্যে নিঃস্ব হয়ে গেছে পরিবারটি। অসুস্থতার কারণে অসীম কুমার রায় চাকরি করতে পারছেন না। তাঁর স্ত্রী বীথি রানী ঝালকাঠি সদর উপজেলার একটি মাদ্রাসার শিক্ষক। এমপিওভুক্ত হয়েও তিনি এখন পর্যন্ত বেতন পান না। স্ত্রীর পিত্রালয়ের সহযোগিতায় অসীম কুমার রায়ের সাময়িক চিকিৎসা চলছে। অসীম কুমার রায়ের বাড়ি পিরোজপুর জেলার মঠবাড়িয়া উপজেলার মিরুখালী গ্রামে। বর্তমানে টাকার অভাবে চিকিৎসা চরমভাবে ব্যাহত হচ্ছে। এমতাবস্থায়, অসীম কুমারের চিকিৎসার জন্য সকল হৃদয়বান ও দানশীল ব্যক্তির আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেছে তাঁর অসহায় পরিবার। চিকিৎসায় সহযোগিতা দিতে সরাসরি যোগাযোগ করুন এই মোবাইল নম্বরে- ০১৭৭৫৪০২৫১৪। আর সাহায্য দিন এই সঞ্চয়ী হিসাবে- বীথি রানী, পূবালী ব্যাংক, ঝালকাঠি শাখা হিসাব নং- ২১৯৪১০১০৬৭১১৯।

ঘোষণা : দৈনিক জনকণ্ঠ মানুষ মানুষের জন্য বিভাগে খবর প্রকাশের মাধ্যমে সহৃদয় ব্যক্তিদের সঙ্গে যোগাযোগ ঘটিয়ে দিয়ে থাকে। সাহায্য সরাসরি সাহায্যপ্রার্থীর ব্যাংক এ্যাকাউন্টে জমা দিতে হবে। অথবা সাহায্যপ্রার্থীর দেয়া মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করতে হবে। দৈনিক জনকণ্ঠ এ বিষয়ে কোন দায়ভার গ্রহণ করবে না।