২৩ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৪ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

নারায়ণগঞ্জে গৃহবধূকে কুপিয়ে হত্যা


নিজস্ব সংবাদদাতা, সিদ্ধিরগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জে॥ নারায়ণগঞ্জ শহরের বাবুরাইল তাতীপাড়া এলাকায় পারিবারিক কলহের জের ধরে লুৎফা বেগম(২৮) নামের এক গৃহবধূকে কুপিয়ে ও শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে। এই ঘটনায় পুলিশ বড় সতীন আকলিমা বেগম (৩০)কে আটক করেছে। ঘটনাটি ঘটে বুধবার গভীর রাতে। পুলিশ বৃহস্পতিবার সকালে ওই বাড়ি থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। ঘটনার পর থেকে স্বামী আব্দুল কাদির পলাতক রয়েছে। নিহত গৃহবধূ লুৎফা বেগমের ছোট বোন নাজমা বেগম জানান, গত দুই বছরে আগে আব্দুল কাদিরের সঙ্গে তার বোন লুৎফা বেগমের দ্বিতীয় বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে নগরের বাবুরাইল তাতীঁপাড়া এলাকার শুক্কুর মিয়ার বাড়িতে বসবাস শুরু করে। তাদের ঘরে এক সন্তান রয়েছে। আব্দুল কাদির এর আগে আকলিমা বেগমের বিয়ে করেন। আকলিমা বেগম ভূঁইয়াপাড়া এলাকায় অপর একটি বাড়িতে তাদের ঘরের দুই সন্তান নিয়ে বসবাস করেন। বিয়ের পর থেকে তাদের মধ্যে পারিবারিক কলহের সৃষ্টি হয়। এই কলহের জের ধরে আকলিমা কৌশলে বুধবার রাতে লুৎফা বেগমের বাড়িতে এসে অবস্থান নেয় এবং গভীর রাতে তাকে ধারালো ছুরি দিয়ে কুপিয়ে ও শ্বাসরোধে হত্যা করে। এসময় লুৎফা বেগমের গোঙ্গানির শব্দে প্রতিবেশীরা এগিয়ে দরজা ভেঙ্গে ভেতর থেকে আকলিমা বেগমকে আটক করেন। ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত (ওসি) মোঃ আসাদুজ্জামান জানান, পারিবারিক কলহের জের ধরে ওই গৃহবধূকে সতীন আকলিমা বেগম কুপিয়ে ও শ্বাসরোধে হত্যা করেছে। প্রতিবেশীরা ধারালো অস্ত্রসহ তাকে হাতেনাতে আটক করেছে। লাশ উদ্ধারের পর ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়। ঘটনার পর থেকে স্বামী আব্দুল কাদির পলাতক রয়েছে।