২০ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৮ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

নির্বাচনে যারা মাঠ ছেড়ে পালিয়ে যায়, তারা বিজয়ী হতে পারে না


স্টাফ রিপোর্টার, সিরাজগঞ্জ ॥ ৫ জানুয়ারির নির্বাচন না করে এবং সিটি নির্বাচনে অংশ নিয়ে মাঝপথে সরে দাঁড়িয়ে বিএনপি আবারও ভুল করেছে উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য, স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, বেগম খালেদা জিয়া কোর্টে দাঁড়িয়ে মাথা নত করেই বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অধীনে নির্বাচন করেছেন। ২০১৯ সালে শেখ হাসিনার অধীনেই নির্বাচন করতে হবে। এর কোন বিকল্প নেই। তিনি সিটি নির্বাচন প্রসঙ্গ টেনে বলেন, যারা মাঠ ছেড়ে পালিয়ে যায়, তারা কোন দিন নির্বাচনে বিজয়ী হতে পারে না। তাদের কোন অভিযোগও থাকতে পারে না। নাসিম খালেদা জিয়াকে ’৭১-এর ঘাতকদের ছেড়ে, অতীতের ভুল স্বীকার করে জনগণের কাছে ক্ষমা চেয়ে আগামী নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত হওয়ার আহ্বান জানান।

তিনি বুধবার সিরাজগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। সম্মেলন উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সভাপতি এইচএম বদিউজ্জামান সোহাগ। প্রধান বক্তা ছিলেন, ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সিদ্দিকী নাজমুল আলম। স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাসিম ছাত্রলীগ ও আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দসহ এমপিদের নিয়ে সম্মেলন স্থলে উপস্থিত হলে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা মুহুর্মুহু সেøাগান দিয়ে তাদের বরণ করে নেয়।

শহীদ এম মনসুর আলী অডিটোরিয়ামে সিরাজগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের এ সম্মেলনের প্রথম অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আসাদুজ্জামান সোহেল। সম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের রাজশাহী বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন এমপি, সাবেক মন্ত্রী ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল লতিফ বিশ্বাস, সাধারণ সম্পাদক গোলাম কিবরিয়া, অধ্যাপক ডাঃ হাবিবে মিল্লাত মুন্না এমপি, গাজী ম ম আমজাদ হোসেন মিলন এমপি, আব্দুল মজিদ ম-ল এমপি, সেলিনা বেগম স্বপ্না এমপি, সাবেক এমপি তানভীর শাকিল জয়। এছাড়াও মঞ্চে জেলা আওয়ামী লীগের নেতা মোস্তাফিজুর রহমান, সিরাজুল ইসলাম খান, আবু ইউসুফ সূর্য্য, কেএম হোসেন আলী হাসান, বাবু বিমল কুমার দাস, এ্যাডভোকেট আব্দুর রহমান, মোস্তফা কামাল খান, কৃষিবিদ সাখাওয়াত হোসেন সুইট, জান্নাত আরা তালুকদার হেনরীসহ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির এক ডজনেরও বেশি নেতা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন।

আওয়ামী লীগের সিনিয়র এ নেতা ছাত্রলীগকে উদ্দেশ করে বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকার দেশের বিদ্যুত, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, কৃষিখাতসহ দেশের সামগ্রিক উন্নয়ন করেছেন। এ উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে ২০১৯ সালের নির্বাচনের আগে অনেক কাজ করতে হবে। জনগণের ভালবাসা এবং মন জয় করেই আগামী নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশকে দক্ষিণ পূর্ব-এশিয়ার মধ্যে একটি সুন্দর এবং সমৃদ্ধশালী দেশ হিসেবে গড়ে তোলা হবে। তিনি এও বলেন, আজ যারা ছাত্রলীগের নেতৃত্বে রয়েছেন বা আগামীতে আসবেন তারাই আগামী দিনে দলের ও দেশের নেতৃত্ব দেবেন। তাই মনে রাখতে হবে দলের পাশাপাশি দেশের জন্য নিজেকে উৎসর্গ করার জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। তাহলেই আগামী দিনে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তোলার অগ্রযাত্রা বাস্তবায়নে শেখ হাসিনার হাত শক্তিশালী হবে। এজন্য আগামী দিনে শেখ হাসিনার হাত শক্তিশালী করতে ছাত্রলীগসহ সহযোগী সকল সংগঠনের নেতাকর্মীর প্রতি আহ্বান জানান নাসিম।

পরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী সন্ধ্যায় শাহজাদপুরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনসভাস্থলের প্রস্তুতি দেখতে যান। এ সময় তার সঙ্গে জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।