১৮ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

জমি নিয়ে বিরোধের জেরে কৃষক খুন


স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার গ্রামে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে আরশেদ আলী (৫৫) নামে এক কৃষককে পিটিয়ে ও কুপিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষের লাঠিয়ালরা। এ সময় তাকে বাঁচাতে গিয়ে আহত হয়েছেন আরও ৬ জন। বুধবার সকালে উপজেলার চর আষাড়িয়াদহ ইউনিয়নের বারিনগর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর প্রতিপক্ষের ৫ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

নিহতের স্ত্রী গোলেনুর বেগম জানান, একই গ্রামের প্রভাবশালী হাজি জাহির উদ্দীনের সঙ্গে তাদের জমি নিয়ে বিরোধ ছিল। এ নিয়ে বিষয়টি আদালত পর্যন্ত গড়ায়। আদালত তাদের পক্ষে রায় দিলে তারা ওই জমিতে পাট চাষ করেন। বুধবার খুব ভোরে হাজি জাহির উদ্দীনের ছেলেরা তাদের চাষকরা পাটের জমিতে হাল চাষ শুরু করেন। খবর পেয়ে তার স্বামী আরশেদ আলী বাঁধা দিতে গেলে জাহির উদ্দীনের ছেলেরা তাকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত করে। এসময় তাকে উদ্ধারে এগিয়ে গেলে একে একে আহত হন, একই গ্রামের আবদুল খালেকের ছেলে আবদুল মমিন (৩৫), তার ভাই নূর আমিন (৩০), ইসমাইল হোসেনের ছেলে মিঠুন (২৫), আবদুস সালামের ছেলে মাইনুল ইসলাম (৩৬), মৃত জয়েন উদ্দীনের ছেলে শরিফুল ইসলাম (২২) ও মৃত নূর মোহাম্মদের ছেলে লিটন (৩০)। পরে এলাকাবাসী তাদের উদ্ধার করে উপজেলা (প্রেমতলী) স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

হাসপাতালের কতর্ব্যরত চিকিৎসক জানিয়েছেন, হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার আগেই আরশেদ আলী মারা যান। বাকিদের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাদের রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। আহতদের মধ্যে আবদুল মমিনের অবস্থাও আশঙ্কাজনক।

গোদাগাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এসএম আবু ফরহাদ জানান, সংঘর্ষের পর পালিয়ে যাওয়ার সময় বিদিরপুর খেয়াঘাট থেকে হাজি জাহির উদ্দীন (৬০) ও তার ছেলে হাবিবুর রহমান (৩৮), সৈয়ব আলী (৩৫), রুহুল আমিন (৩২) ও আল-আমিনকে (৩০) আটক করা হয়েছে। হত্যাকান্ডের ঘটনায় থানায় হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।