মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১২ আশ্বিন ১৪২৪, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

ফাইনাল ম্যাচ, লক্ষ্য তো অবশ্যই জয় ॥ মুশফিক

প্রকাশিত : ৬ মে ২০১৫
ফাইনাল ম্যাচ, লক্ষ্য তো অবশ্যই জয় ॥ মুশফিক

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ খুলনা টেস্ট অনেক কিছুই দিয়েছে বাংলাদেশ দলকে। এবার মিরপুর টেস্ট জেতে দারুণ এক অর্জনের অপেক্ষা। হাতছানি দিচ্ছে টেস্ট সিরিজ জিতে গৌরবময় এক অর্জন লাভের। বাংলাদেশ অধিনায়ক মুশফিকুর রহীমও জানালেন আগের ম্যার্চে ধারাবাহিকতা রেখে এবার নিজেদের পক্ষে ফল নিয়ে আসার প্রত্যয়। চলতি আসরে একটি ম্যাচও জেততে পারেনি পাকরা। মুশফিক প্রত্যাশা জানালেন পাকিস্তান দলকে জয়হীন রেখেই সিরিজ শেষ করার। সে জন্যই শেষ টেস্ট ম্যাচকে মুশফিক দেখছেন ফাইনাল ম্যাচ হিসেবে এবং বাংলাদেশের লক্ষ্য অবশ্যই জয় বলে দাবি করলেন মুশফিক। তবে শেষ ম্যাচে ফিফটি-ফিফটি সুযোগ দেখছেন তিনি উভয় দলের জন্য। মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরও যা বলেছেন তা তুলে ধরা হলো-

প্রসঙ্গ ॥ এবার সিরিজে দলের বেশকিছু প্রাপ্তি আছে। শেষ টেস্টে কী লক্ষ্য থাকবে?

মুশফিক ॥ অবশ্যই প্রাপ্তি তো আছেই। আশা করব সেই ইতিবাচক দিকগুলো নিয়ে আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে এই টেস্টটা শুরু করতে। ফাইনাল ম্যাচ সেহেতু লক্ষ্য তো অবশ্যই জয়। ফাইনাল ম্যাচে জয়ের জন্য যা যা করা দরকার এই কাজগুলো যেন আমরা ফাইনাল ম্যাচে পুনরায় করতে পারি। সেটার জন্য সবাই অনেক কষ্ট করেছে। আশা করব এই পাঁচদিন যেন আমরা কঠিন ক্রিকেট খেলে ফলাফলটা আমাদের পক্ষে নিয়ে আসতে পারি।

প্রসঙ্গ ॥ ভাল একটা সিরিজ হয়েছে। শেষ ম্যাচে এর চেয়ে ভাল কী হতে পারে? আর বোলিং কম্বিনেশন কেমন থাকবে; এখানে অভিজ্ঞতাকে প্রাধান্য দেবেন কি না?

মুশফিক ॥ বোলিং বিভাগের ক্ষেত্রে আমাদের কাছে দুটি পথই খোলা আছে। আবুল হাসান ও শাহাদাত হোসেন। আমরা এখনও সিদ্ধান্ত নেইনি। আশা করি উইকেটে বোলারদের জন্য সহায়তা থাকবে। দুই পেসারও খেলাতে পারি আবার তিন পেসারও খেলতে পারে। যদি দুই পেসার খেলে তাহলে বাড়তি এক স্পিনার খেলানো হতে পারে। কালকে সিদ্ধান্ত নেব; যেহেতু উইকেটটা এখনও পুরোপুরি তৈরি হয়নি।

প্রসঙ্গ ॥ দুটি ইনজুরি আছে। আপনার এবং তামিমের। এগুলো কতটা প্রভাব ফেলতে পারে?

মুশফিক ॥ ক্রিকেটে এমন ছোটখাটো ইনজুরি আসতেই পারে। আল্লাহর রহমতে আমারও কোন চিড় নেই। তামিমেরও কোন চিড় নেই। যেহেতু তামিম ভাল ফর্মে আছে, না খেলার মতো এমন কিছু না। অবশ্যই কিছু ব্যথা আছে। সেটা কাটিয়ে খেলার জন্য প্রস্তুত আছে। আমি আজকে কিপিং করেছি। ভাল লাগছে। আশা করি কালকে ওয়ার্মআপের আগে একটু করে দেখব। শতভাগ ফিট হয় তো হব না; যতটুকুই আছি সেটা নিয়ে দলের জন্য খেলতে হবে।

প্রসঙ্গ ॥ বলছিলেন যে তিন পেসার কিংবা একজন বাড়তি স্পিনার খেলাতে পারেন; ২০ উইকেট নিতে হবে এবং ম্যাচটি জেততে হবে এ জন্যই বোলিং শক্তি বাড়ানো হচ্ছে?

মুশফিক ॥ এটা হচ্ছে ফাইনাল ম্যাচ। ওরা অবশ্যই চেষ্টা করবে। আমরাও তাই করব। আমরা চেষ্টা করব কিভাবে ২০ উইকেট নেয়া যায়। খুলনা টেস্টে উইকেটটা ব্যাটিং সহায়ক হলেও আমাদের যারা বোলার ছিল তারা অনেক চেষ্টা করেছে। আমরা যদি অনুভব করি আমাদের এই উইকেটে আরও একটি অতিরিক্ত বোলার লাগবে। এক সিমার কিংবা স্পিনার; সেটা আমরা নির্বাচন করব।

প্রসঙ্গ ॥ খুলনার চেয়ে মিরপুরের উইকেটে কী রেজাল্ট হওয়ার সুযোগ বেশি?

মুশফিক ॥ অবশ্যই। এখানে আমরা যে কয়টা টেস্ট খেলেছি সব ফলাফল হয়েছে। যদি না আবহাওয়া কোন সমস্যা করেছে। সে জন্যই আমি বলি এই উইকেট বোলার ও ব্যাটসম্যানদের জন্য সহায়ক থাকে। যে কোন দলের স্পিনাররা এখান থেকে সুবিধা আদায় করে নিতে পারে। খুলনায় আমরা ভাল খেলেছি; কিন্তু এখানে আমাদের খেলাটা খুব চ্যালেঞ্জিং হবে। ওরাও আমাদের ২০ উইকেট তুলে নেয়ার জন্য সব রকম পদক্ষেপ নেবে। ওরা চেষ্টা করবে যেভাবেই হোক ফলাফল যেন ওদের পক্ষে যায়। আমরাও চেষ্টা করব আগের ফর্মটা যেন শেষ ম্যাচে ধরে রাখতে পারি।

প্রসঙ্গ ॥ লিটন কুমারকে অনেকক্ষণ কিপিং অনুশীলন করানো হলো। তার অভিষেক হওয়ার কোন সুযোগ আছে?

মুশফিক ॥ আমি কালকে ওয়ার্মআপ পর্যন্ত অপেক্ষা করব। এটা আমার সঙ্গে সম্পর্কিত কোন বিষয় নয়। ও আমার মনে হয় যোগ্য বলেই ১৪ জনের স্কোয়াডে আছে। কালকে যদি নাও সুযোগ পায় আমার মনে হয় ভবিষ্যতে সবচেয়ে ভাল এক কিপার ব্যাটসম্যান বাংলাদেশ দল পাবে।

প্রসঙ্গ ॥ বাংলাদেশ দল ওয়ানডে সিরিজ এবং টি২০ জিতেছে। প্রথম টেস্ট ড্র করেছে। এবার যদি টেস্ট জেতে যায় আপনার কি মনে হয় দেশের ইতিহাসে এটা সেরা সিরিজ হবে?

মুশফিক ॥ সেটা তো অবশ্যই। এখন পর্যন্ত যেভাবে ফলাফল করেছে দল। আমার মনে হয় না এর আগে এ রকম করেছে। আমার মনে হয় না, ওদের তিন ফরমেটে তিন রকম দল ছিল। আমাদের জন্য এটা কম চ্যালেঞ্জের ছিল না। আমাদের সবার প্রত্যাশা ছিল বিশ্বকাপে আমরা যেমন ভাল পারফর্মেন্স করেছি সেটা ধরে রাখার। টেস্ট সিরিজে সবার প্রত্যাশা ছিল। আশা করব কাল থেকে যেটা শুরু হবে পাঁচদিন সেরা ক্রিকেট খেলে ভাল ফলাফল করতে পারি। শেষ তিন মাস ভাল খেলার কারণে সবাই আত্মবিশ্বাসী।

প্রসঙ্গ ॥ খুলনা টেস্ট ড্র হওয়ার পর দুই দলের সম্ভাবনাই দেখা যাচ্ছে। আপনার মতে আমাদের সম্ভাবনার দিকগুলো কী কী?

মুশফিক ॥ পাকিস্তান খুব ভয়ঙ্কর দল। তাদের বোলিং বলেন ব্যাটিং বলেন দু’টাই খুব ভাল। দু’দলের মধ্যে এক দলের জেতার সুযোগ সব সময়ই থাকে। আমাদেরও ব্যাটিং-বোলিং-ফিল্ডিংটা ভাল। আমরা ভাল ফর্মে আছি। পাঁচদিন ধরে যে ভাল ক্রিকেট খেলবে; এই ১৫টা সেশনের মধ্যে কয়েকটা সেশন যে জয় লাভ করতে পারবে তারই জয়ের সম্ভাবনা বেশি থাকবে। এটা এখনই বলা যাবে না আমরা কিংবা তারা ফেবারিট। এটা ফিফটি-ফিফটি ম্যাচ হবে। তবে আমরা আশা করব এ সফরে ওরা যেমন জয়হীন আছে তেমনই যেন থাকে।

প্রকাশিত : ৬ মে ২০১৫

০৬/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



শীর্ষ সংবাদ:
রোহিঙ্গাদের জন্য সেফ জোনের প্রস্তাব সারা বিশ্ব গ্রহণ করেছে ॥ বিএনপির আপত্তি কেন? || গন্তব্যে পৌঁছেছে পদ্মা সেতুর সুপার স্ট্রাকচারবাহী ভাসমান ক্রেন || শিক্ষা প্রতিষ্ঠান স্থাপনে বড় পরিবর্তন আসছে, আট সদস্যের কমিটি || আগামী বাজেট হবে সাড়ে চার লাখ কোটি টাকার ॥ অর্থমন্ত্রী || বিদ্যুতের দাম ইউনিট প্রতি ৭২ পয়সা বৃদ্ধির সুপারিশ || মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুমে পাঠদান চলছে জোড়াতালি দিয়ে || মংডুতে ৩ গণকবরের সন্ধান ॥ দুদিনে এসেছে আরও ২০ হাজার || বৃষ্টিতে ভিজছে শিশুরা, খাবার জোগাড়ে অনেকে নেমেছে ভিক্ষায় || চট্টগ্রাম বন্দরের বে টার্মিনাল নির্মাণে গতি সঞ্চার || আন্তর্জাতিক মানবপাচার চক্রের খপ্পরে ৫ শ’ তরুণ মেক্সিকো সীমান্তে ||