১২ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের তিনটি ধারা অসাংবিধানিক: আপীল বিভাগ


স্টাফ রিপোর্টার॥ ধর্ষণের দায়ে মৃত্যুদণ্ডের বিধান সম্পর্কিত ১৯৯৫ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের তিনটি ধারা অবৈধ ও অসাংবিধানিক ঘোষণা করেছেন আপীল বিভাগ। এতে ধর্ষণ করে হত্যা মামলায় একমাত্র সাজা মৃত্যুদণ্ডের বিধানকে অসাংবিধানিক ঘোষণা করা হয়েছে। ফলে শুধুমাত্র মৃত্যুদণ্ডের বিধান আর থাকছে না।

মঙ্গলবার প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বে চার সদস্যের আপীল বেঞ্চ এই রায় দেন।

এই রায়ের প্রেক্ষিতে ২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ′ধর্ষণ, ধর্ষণ জনিত কারণে মৃত্যু ইত্যাদির শাস্তি′র বিধান রাখা ৯ অনুচ্ছেদের ২, ৩ এবং ৪ ধারায় থাকা মৃত্যুদণ্ড ছাড়াও যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড, অর্থদণ্ডের বিধান বলবৎ থাকছে।

২০০৫ সালে ধর্ষণের অভিযোগে আব্দুস শুক্কুর নামে এক আসামির মৃত্যুদণ্ড দেয়া হলে এ প্রেক্ষিতে হাইকোর্টে রিট করে বাংলাদেশ লিগ্যাল এইড সার্ভিস। রিট আবেদনের শুনানি শেষে ২০১০ সালের ২ মার্চ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন′১৯৯৫ এর ৬(২) ধারা অসাংবিধানিক বলে রায় দেন। এ মামলাটি আপিলে আসার পর শুনানি শেষে গত বছর রায়ের জন্য অপেক্ষমান রাখেন আপিল বিভাগ। মঙ্গলবার এর চূড়ান্ত রায় ঘোষিত হলো।

আদালতে রিটকারীদের আইনজীবী ছিলেন এমআই ফারুকি। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।