২২ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট পূর্বের ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

লোভের কবলে লবস্টার নিধন চলছে অবাধে


স্টাফ রিপোর্টার, কক্সবাজার ॥ কক্সবাজার-মহেশখালী, সোনাদিয়া, টেকনাফ ও সেন্টমার্টিনদ্বীপ সাগরের মোহনায় অবাধে লবস্টার নিধন চলছে। কিছু হোটেল কতৃপক্ষ এক শ্রেণীর জেলেকে লোভে ফেলে চড়া দামে লবস্টার কেনার আগ্রহ দেখানোর কারণে ওইসব জেলে সৈকতে নোঙরজাল তথা বেহুন্দি জাল পেতে ধরে নিয়ে আসছে লবস্টার। অনেকে মিং জাল বসিয়ে লবস্টার ছাড়াও বিভিন্ন প্রজাতির মাদার ফিশ ধরে নিয়ে আসছে সাগর থেকে। এসবের মধ্যে বহু ডিমওয়ালা লবস্টার এবং মাদার ফিশও রয়েছে। মৎস্য অধিদফতরের তদারকি এবং জেলেদের সচেতনতা না থাকায় সাগরে বর্তমানে লবস্টার শূন্যের কোটায় বলে জানা গেছে। কক্সবাজারে জেলেরা প্রতি কেজি লবস্টার ছয় শ’ থেকে ১২শ’ টাকায় বিক্রি করছে বিভিন্ন তারকা মানের হোটেলে। আবার পর্যটকদের আকৃষ্ট করতে সাগরপাড়ে সন্ধ্যায় ভ্যানগাড়িতে করে ভাজা মাছ বিক্রেতাদের কাছেও বিক্রি করছে এসব লবস্টার। মঙ্গলবার কক্সবাজারে বঙ্গোপসাগরে সোনাদিয়া চ্যানেলে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ অবৈধ বেহুন্দি ও মিং জাল জব্দ করেছে কোস্টগার্ড। সোনাদিয়া চ্যানেলে নিয়মিত টহলের সময় দুটি ফিশিং বোটে তল্লাশি চালিয়ে আটটি অবৈধ বেহুন্দি জাল ও ১৪টি মিং জাল জব্দ করে কোস্টগার্ড। জেলেদের পাতানো ওইসব জালে তিন শ’ গ্রাম থেকে শুরু করে এক কেজির চেয়েও বেশি ওজনের লবস্টার আটকা পড়ছে।