২২ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

গৌরনদী হাসপাতালে পানি নেই ১৩ দিন ॥ চরম ভোগান্তি


স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের পার্শ্ববর্তী জনগুরুত্বপূর্ণ গৌরনদী উপজেলা হাসপাতালে গত ১৩ দিন থেকে পানি নেই। একে হাসপাতালের রোগী, স্বজন, ডাক্তার, নার্সসহ স্টাফদের চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। কবেনাগাদ পানির সমস্যা সমাধান হবে তা বলতে পারছেন না সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা।

হাসপাতালের জুনিয়র টেকনিশিয়ান শামীম আহসান জানান, গত ২১ এপ্রিল দুপুরে পানির পাম্প চালু অবস্থায় বিকল হয়ে যায়। পরবর্তীতে পাম্প মেরামত করার জন্য স্বাস্থ্য প্রকৌশলী অধিদফতরের বরিশাল অফিসে প্রেরণ করা হয়। পাম্প বন্ধ থাকায় হাসপাতাল কমপ্লেক্স, ডাক্তার, নার্স, দ্বিতীয়, তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী, ডরমেটরিসহ ১০টি বহুতল ভবনে গত ১৩ দিন থেকে পানি সরবরাহ বন্ধ রয়েছে। হাসপাতালের জরুরী বিভাগে কর্মরত চিকিৎসক নিখিল চন্দ্র বলেন, পানির অভাবে গত দুইদিন যাবত গোসল করতে পারছি না। হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে ৫১ জন রোগী বিভিন্ন ওয়ার্ডে ভর্তি রয়েছে। এরমধ্যে বেশিরভাগ রোগী হচ্ছে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত। যাদের সার্বক্ষণিক পানির প্রয়োজন।

ঈশ্বরদী পৌরসভায় এক সপ্তাহ ধরে পানি নেই

স্টাফ রিপোর্টার, ঈশ্বরদী থেকে জানান, গত এক সপ্তাহ থেকে ঈশ্বরদী পৌরসভার দু’টি পাম্প মেশিন বিকল হওয়ায় পানি সরবরাহ বন্ধ রয়েছে। এতে উপজেলা রোড, পিয়ারপুর, পিয়ারাখালি, পশ্চিমটেংরী, বাবুপাড়া, সাঁড়া গোপালপুর এলাকার মানুষ তীব্র পানি সঙ্কটে পড়েছেন। এছাড়া ভূগর্ভস্থ পানির স্তর নিচে নেমে যাওয়ায় ডিপটিউবওয়েল থেকেও পানি উঠছে না। পাম্প মেশিন বিকল হওয়ার পর পৌরসভা থেকে চার পাঁচ দিনের মধ্যে ঠিক করার কথা বলা হলেও একসপ্তাহ অতিবাহিত হলেও মেরামত না করায় এলাকার জনসাধারণের মধ্যে চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। গত ২৫ এপ্রিল সারা দেশের ন্যায় ঈশ্বরদীতেও ভূমিকম্প হলে উপজেলা রোডস্থ সাব রেজিস্টার্ড অফিসের সামনের পাম্পটি বিকল হয়ে পড়ে বলে পৌরসভার সংশ্লিষ্ট বিভাগের এক কর্মকর্তা সূত্রে জানা যায়।