২৩ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ২ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

হত্যার ৩৭ দিন পর মৃতদেহ উদ্ধার, স্ত্রী আটক


নিজস্ব সংবাদদাতা, ঝিনাইদহ ॥ ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে স্বামীকে হত্যার পর মাটির নিচে পুতে রাখার ৩৭ দিন পর মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহতের নাম রফি উদ্দিন ওরফে রবিকউল ইসলাম (৫০)। আজ সকালে মোবারকগঞ্জ চিনিকেলর স্টাফ কোয়াটারের গোয়াল ঘরের ভিতরের মাটি খুড়ে তার বস্তাবন্দি মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় পুলিশ নিহতের স্ত্রী ফাতেমা খাতুনকে আটক করেছে। নিহত রফি উদ্দিন মোবারকগঞ্জ চিনিকলের গ্যারেজ ম্যাকানিক ছিলেন। তিনি মাগুরার শ্রীপুর উপজেলার বারইপাড়া গ্রামের তাহাজ উদ্দিন শেখের ছেলে।

কালীগঞ্জ থানার ওসি আনোয়ার জানান, গত ২৬ মার্চ রাতে রফি উদ্দিনের সঙ্গে তার স্ত্রীর ঝগড়া হয়। সে সময় স্ত্রী লোহার রড় দিয়ে স্বামীর মাথায় আঘাত করলে তিনি মারা যান। তখন স্ত্রী তার প্রেমিকের সহযোগিতায় স্বামীর মৃতদেহ বস্তায় ভরে গোয়ালঘরের ভিতরে মাটির নিচে পুঁতে রাখে। পরে ওই স্থানে ইট বিছিয়ে প্লাষ্টার করে দেয়। অনেক খোঁজখবরের পর নিহতের স্ত্রী ফাতেমা খাতুনকে আটক করা হয়। তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী বাড়ির সামনে নিজ গোয়ালঘরের মাটি খুড়ে স্বামী রফি উদ্দিন ওরফে রবিউল ইসলামের বস্তাবন্দি মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনার সঙ্গে আরও জড়িতদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।