১৮ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৪ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

উখিয়া বিদ্যালয়ে গাছের নিচে পাঠদান


নিজস্ব সংবাদদদাতা,উখিয়া ॥ কক্সবাজারের উখিয়ার পালং আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবনে ফাটল সৃষ্টির কারণে শিক্ষার্থীরা খোলা আকাশের নিচে পাঠদান করছে। ভবন ধ্বসে পড়ার আশঙ্কায় এ ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। সম্প্রতি ঘটে যাওয়া ভূমিকম্পে একাডেমিক ভবন ও বিজ্ঞান ভবনে ফাটল সৃষ্টি হলে কংক্রিটের আঘাত ও ছুটাছুটি করতে গিয়ে অন্তত ২০ জন শিক্ষার্থী আঘাত প্রাপ্ত হয়েছে।

ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্র বোরহান উদ্দিন, হারুন রশিদ, মো: ফারুক ও আবিদ জানান, ‘গত মঙ্গলবার সকাল ১০ টায় ক্লাস চলাকালীন সময়ে বিকট শব্দ হয়ে ভবনে ফাটলের সৃষ্টি হয়। এক পর্যায়ে সিমেন্টযুক্ত কংক্রিট আমাদের মাথার উপর পড়লে জীবনের ভয়ে আমরা ক্লাস থেকে দ্রুত বের হয়ে নিরাপদ আশ্রয় নিই।’ শিক্ষার্থী তহিদ, আবদুল্লাহ, জোবাইর, সোহেল ও জনি বড়–য়া আরও বলেন, যেভাবে ভবনের ফাটল সৃষ্টি হয়েছে যে কোন সময় ভবন ধ্বসে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নুরুল হক জানান, পালং আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ে বর্তমানে প্রায় ১২’শ ছাত্র-ছাত্রী রয়েছে। ২০০১ সালে নির্মিত দ্বিতল বিশিষ্ট একাডেমিক ভবন ও বিজ্ঞান ভবন দু’টি ঝুঁকিপূর্ণ। তিনি আরও বলেন, গত ৪ এপ্রিল শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর কক্সবাজারের নির্বাহী প্রকৌশলী বরাবরে ঝুঁকিপূর্ণ একাডেমিক ভবন ও বিজ্ঞান ভবন পরিদর্শন করে পরিত্যক্ত ঘোষনা করার জন্য লিখিতভাবে জানালেও এ পর্যন্ত কেউ পরিদর্শনে আসেনি।

বিদ্যালয় ভবনের ফাটলের খবর পেয়ে স্থানীয় মেম্বার আকতার কামাল চৌধুরী, মেম্বার নেজাম উদ্দিন দুলাল, শফিকুল ইসলাম চৌধুরী ভূলু ও আলমগীর হাসান সহ বেশ কয়েকজন অভিভাবক বিদ্যালয়ে ছুটে যান।

বর্তমানে পালং আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের দু’টি ঝুঁকিপূর্ণ ভবনে ফাটল সৃষ্টি হওয়ায় শিক্ষা কার্যক্রম ও পাঠদান চরম বিঘ্ন হওয়ার আশংকা দেখা দিয়েছে। অভিভাবক, শিক্ষার্থী ও শিক্ষকমন্ডলী এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক সহ সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।