২৪ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

নেপালে নিহতের সংখ্যা দশ হাজার ছাড়িয়ে যেতে পারে ॥ কৈরালা


জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ নেপালের ভূমিকম্পে নিহতের সংখ্যা দশ হাজার ছাড়িয়ে যেতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী সুশীল কৈরালা। মঙ্গলবার দেয়া এক সাক্ষাতকারে এ আশঙ্কা প্রাকাশ করেন তিনি। এর পাশাপাশি ত্রাণ তৎপরতা জোরদার করার নির্দেশ দিয়েছেন ও বিদেশী সাহায্য দাতাদের কাছে তাঁবু ও ওষুধ সরবরাহের আবেদন জানিয়েছেন তিনি। সাক্ষাতকারে তিনি বলেছেন, “যুদ্ধকালীন পরিস্থিতির মতো উদ্ধার ও ত্রাণ তৎপরতা চালাতে সরকার সবকিছুই করছে। নেপালের জন্য এটি খুব কঠিন ও চ্যালেঞ্জিং একটি সময়।” খবর ওয়েবসাইটের।

দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালযের এক কর্মকর্তা নিহতের সর্বশেষ সংখ্যা ৪,৩৪৯ জন বলে জানিয়েছেন। এই সংখ্যা ১০ হাজার পৌঁছে গেলে তা ১৯৩৪ সালের প্রলয়ঙ্করী ভূমিকম্পে নিহত ৮,৫০০ জনকেও ছাড়িয়ে যাবে। এতদিন পর্যন্ত ওই ভূমিকম্পই ছিল নেপালের ইতিহাসে সবচেয়ে প্রাণঘাতি প্রাকৃতিক দুর্যোগ।

শনিবার ৭ দশমিক ৯ মাত্রার এই ভূমিকম্পের সময় কৈরালা বিদেশে ছিলেন। পরদিন রবিবার তিনি দেশে ফেরেন। দেশে ফিরেই তিনি ত্রাণ তৎপরতা জোরদার ও তৎপরতা সমন্বয়ের নির্দেশ দেন। বিদেশী সাহায্যের আবেদন জানিয়ে কৈরালা বলেন, নেপালের তাঁবু ও ওষুধ দরকার।

ঘরবাড়ি ধ্বংস হয়ে যাওয়ায় অনেক মানুষ বাইরে ঘুমাতে বাধ্য হচ্ছে। এছাড়া ডজনখানেক পরাঘাতের কারণে অনেকে বাড়িতে থাকতে ভয় পাচ্ছে বলে জানান তিনি। তিনি বলেন, “আমাদের তাঁবু দরকার, অনেক ওষুধ দরকার। লোকজন খোলা আকাশের নিচে মাঠে বৃষ্টির মধ্যে ঘুমাতে বাধ্য হচ্ছে। ৭,০০০ বেশি লোক আহত হয়ে আছে। তাদের চিকিৎসা ও পুনর্বাসন বড় ধরনের চ্যালেঞ্জ হতে যাচ্ছে।’

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: