২৩ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

বাগেরহাটে আওয়ামী লীগ কর্মীকে কুপিয়ে হত্যা


স্টাফ রিপোর্টার, বাগেরহাট ॥ বাগেরহাটে মোজাফফর রহমান ওরফে রাজা শেখ (৩৬) নামে আওয়ামী লীগের এক কর্মীকে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। সোমবার বিকেলে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে তাঁর মৃত্যু হয়। নিহত রাজা শেখ কৃষ্ণনগর গ্রামের ইসমাঈল শেখের ছেলে। হত্যাকা-ে জড়িত সন্দেহে শেখ শহীদুল ইসলাম (৪০) নামে একজনকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে।

সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় সদর উপজেলার কাড়াপাড়া ইউনিয়নের কৃষ্ণনগর গ্রামে রাজা শেখের ওপর সন্ত্রাসীরা ধারালো অস্ত্র ও লোহার রড নিয়ে হামলা চালায়। এতে সে গুরুতর আহত হন। পরে স্থানীয় লোকজন রাজাকে উদ্ধার করে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে তাঁর অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

নিহতের ভাগ্নে মোঃ রাব্বি শেখ জনকণ্ঠকে বলেন, রাজা শেখ বাড়ি থেকে বের হয়ে বড় খোকার দোকানের সামনে এলে আগে থেকে ওঁৎ পেতে থাকা শহীদুল, আল আমিন ও মিজান নামে তিন ব্যক্তি লোহার রড দিয়ে বেধড়ক পেটায় এবং রামদা দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে ফেলে রেখে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন ও পরিবারের সদস্যরা রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাঁর মৃত্যু হয়। রাজা শেখ আওয়ামী লীগের সক্রিয় কর্মী ছিলেন বলে তিনি জানান। তবে কি কারণে তাঁর ওপর হামলা হয়েছে, তা তিনি বলতে পারেননি।

বাগেরহাট মডেল থানার ওসি মোঃ তোজাম্মেল হক বলেন, সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় ৪-৫ জনের একটি সন্ত্রাসী দল লোহার রড ও ধারালো অস্ত্র নিয়ে রাজার ওপর হামলা চালায়। এতে রাজা গুরুতর আহত হন। পরে স্থানীয় লোকজনের মাধ্যমে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে রাজাকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে এবং রাজার ওপর হামলার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে শহীদুল ইসলাম নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে। কি কারণে রাজাকে হত্যা করা হয়েছে- তা জানতে পুলিশের হাতে আটক শহীদুলকে থানায় রেখে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: