২১ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

মনজুরের পোলিং এজেন্ট ও কেন্দ্র আহ্বায়কদের হয়রানির অভিযোগ খসরুর


স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ সিটি নির্বাচনে চট্টগ্রাম উন্নয়ন আন্দোলনের মেয়র প্রার্থী এম মনজুর আলমের পোলিং এজেন্ট ও বিভিন্ন কেন্দ্র কমিটির আহ্বায়কদের তালিকা করে হয়রানি ও ধরপাকড় করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির মহানগর সভাপতি ও আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। তিনি বলেন, এর মধ্যে নানা অজুহাতে অনেককে গ্রেফতার করা হয়েছে, যাদের বিরুদ্ধে কোন মামলাও নেই। এ পর্যন্ত এমন প্রায় ২০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন বিএনপির এই নেতা। রবিবার সংবাদ সম্মেলনে মনজুর আলমের প্রধান নির্বাচনী এজেন্ট আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ করেও কোন প্রতিকার মিলছে না। পুলিশ প্রশাসন নির্বাচন কমিশনের নির্দেশনা মেনে চলছে না বলেও তিনি অভিযোগ করেন।

আমীর খসরু বলেন, জনগণের সম্পৃক্ততা ও গণজোয়ার শুরু হওয়ায় আমরা লক্ষ্য করছি যে, বিভিন্নভাবে নির্যাতন ও নিপীড়ন বাড়তে শুরু করেছে। গ্রেফতার ও হয়রানি অতিমাত্রায় বেড়ে গেছে। নির্বাচন যতই কাছে আসছে হয়রানির মাত্রা ততই বাড়ছে। বিভিন্ন কেন্দ্রভিত্তিক কমিটির আহ্বায়ক এবং পোলিং এজেন্টদের গ্রেফতার ও ভয়ভীতি দেখাচ্ছে। সরকারের বিভিন্ন সংস্থাগুলোর সহযোগিতায় নির্বাচনকে প্রভাবিত করার অপচেষ্টা চলছে।

মনজুর আলমের গণসংযোগ ॥ চট্টগ্রাম উন্নয়ন আন্দোলনের মেয়র প্রার্থী এম মনজুর আলমের পক্ষে গণজোয়ার থেকে সরকারদলীয় নেতাকর্মীরা সন্ত্রাসের আশ্রয় নিচ্ছেন বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান। প্রচারে শেষদিন রবিবার সকালে নগরীর উত্তর কাট্টলী ওয়ার্ডের বিভিন্ন এলাকায় মেয়র প্রার্থীকে নিয়ে গণসংযোগ করেন তিনি। এ সময় প্রার্থী এম মনজুর আলম বলেন, মেয়র হিসেবে দলমতের উর্ধে থেকে নগরবাসীর সেবা করেছি বলেই তাদের অন্তরে স্থান করে নিয়েছি। জনগণ উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষা করতে কমলালেবু প্রতীককেই বিজয়ী করবে।

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও মনজুর আলমের নির্বাচন পরিচালনার প্রধান সমন্বয়কারী আবদুল্লাহ আল নোমান বলেন, সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে গণমানুষের জোয়ার দেখে সরকার সন্ত্রাসের আশ্রয় নিচ্ছে।