১৯ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৭ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

গাজীপুরে ভূমিকম্পের সময় কারখানা থেকে নামতে বাধা পুলিশ-শ্রমিক সংঘর্ষে আহত ১২


নিজস্ব সংবাদদাতা, গাজীপুর, ২৬ এপ্রিল ॥ গাজীপুরে রবিবার দুপুরে ফের ভূকম্পন অনুভূত হলে বিভিন্ন গার্মেন্ট কারখানার শ্রমিকদের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় হুড়োহুড়ি করে কারখানা থেকে বের হতে গিয়ে দেড় শতাধিক শ্রমিক আহত হয়। এদিকে ভূমিকম্পের সময় এক কারখানার আতঙ্কিত শ্রমিকরা কারখানা থেকে বেরিয়ে আসতে চাইলে বাধা দেয়ার অভিযোগে বিক্ষুব্ধ শ্রমিকদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে পাঁচ পুলিশসহ অন্তত ১২ জন আহত হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ টিয়ারশেল ও শর্টগানের গুলি ছোড়ে। এ ঘটনায় জেলার অধিকাংশ গার্মেন্ট কারখানা ছুটি ঘোষণা করে কর্তৃপক্ষ।

পুুলিশ, শ্রমিক ও এলাকাবাসী জানায়, শনিবার ভূমিকম্পের পর শিল্পাঞ্চল গাজীপুরের অধিকাংশ কারখানার শ্রমিকদের মাঝে ভবনে ফাটল ও হেলে পড়াসহ নানা গুজব ছড়িয়ে পড়ে। এতে শ্রমিকদের মাঝে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়। রবিবার দুপুরেও আকস্মিক ভূকম্পন শুরু হয়। এ সময় গাজীপুর মহানগরের বড়বাড়ি এলাকার হোপ লোন ফ্যাশন, ভোগড়ার আলিফ ক্যাজুয়াল ওয়্যার লিমিটেড, মোগরখাল এলাকার টিএনজেড ফ্যাশন, কাশিমপুরের মাল্টিফ্যাব, নাওজোড়ের রানা টাওয়ার, সদর উপজেলার মনিপুরের ইউটাহ ফ্যাশন লিমিটেড, কালিয়াকৈরের চন্দ্রা এলাকার মাহমুদ জিন্স ও সফিপুরের নিট এশিয়া গার্মেন্টসসহ বিভিন্ন কারখানার শ্রমিকদের মাঝে আতঙ্ক দেখা দেয়। এ সময় এসব কারখানার আতঙ্কিত শ্রমিকরা হুড়োহুড়ি করে কারখানা ভবন থেকে বাইরে বের হতে গেলে দেড় শতাধিক শ্রমিক আহত হয়। এদের মধ্যে ৪৭ জনকে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে এবং অন্যদের বিভিন্ন হাসপাতাল ও ক্লিনিকে পাঠানো হয়। গুরুতর আহত কয়েকজনকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। আহতদের মধ্যে টিএনজেড ফ্যাশনের আয়েশা (২৫), কল্পনা (২০), পারভীন (২৬), মাসুদা (২০), শামীমা (৩০), নূপুর (২৫), পারভীন (২০), শহীদুল (৩০), ইউটাহ ফ্যাশনের আজিদা খাতুন (২০), রাশিদা (২১), জাকিয়া (২৮), শিরিন (২৩), লায়লা (৩৫), রতœা (২২), রাবেয়া (২৯) এবং রানা টাওয়ারের তানিয়া (১৮) রয়েছে।

গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক আব্দুস সালাম সরকার জানান, বিকেল সাড়ে তিনটা পর্যন্ত এ হাসপাতালে ৩০ শ্রমিককে ভর্তি, দুইজনকে ঢাকায় রেফার্ড এবং ১৫ জনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। তবে রোগী এখনও আসছে।

এদিকে শনিবার ভূমিকম্পের কারণে মাটি দেবে গাজীপুর মহানগরের তারগাছ এলাকার হোপ লোন ফ্যাশন কারখানা ভবন হেলে পড়েছে এবং ভবনের বিভিন্ন স্থানে ফাটলের সৃষ্টি হয়েছে- এমন সংবাদ ছড়িয়ে পড়লে ওই কারখানার শ্রমিকদের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। এ ঘটনার পর রবিবার ফের ভূমিকম্পের সময় ওই কারখানার শ্রমিকরা আতঙ্কিত হয়ে ওঠে। এ সময় তারা দিগি¦দিক ছোটাছুটি শুরু করে। আতঙ্কিত শ্রমিকরা কারখানার ভেতর থেকে বাইরে বের হতে চাইলে মালিকপক্ষের লোকজন বাধা দেয় বলে শ্রমিকরা জানায়। এ নিয়ে শ্রমিকরা বিক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে। এক পর্যায়ে বাধা উপেক্ষা করে শ্রমিকরা কারখানা থেকে বেরিয়ে সড়কে চলে আসে। বাধা দেয়ার প্রতিবাদে বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা কারখানা সংলগ্ন ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে শ্রমিকদের মহাসড়কের ওপর থেকে সরিয়ে দিতে গেলে শ্রমিকরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল ছুড়ে। এ সময় পুলিশ শ্রমিকদের লাঠিচার্জ ও ধাওয়া করলে শ্রমিকদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ ও ধাওয়া পাল্টাধাওয়া শুরু হয়। একপর্যায়ে পুলিশ টিয়ারশেল ও রাবার বুলেট ছুড়ে শ্রমিকদের ছত্রভঙ্গ করে দিলে মহাসড়কে যান চলাচল শুরু হয়। এ সময় ৫ পুলিশসহ অন্তত ১২ জন আহত হয়।

গাজীপুর শিল্পাঞ্চল পুলিশের এএসপি মাহবুব হোসেন কাজল জানান, তারগাছ এলাকায় শ্রমিকদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়েছে। সংঘর্ষে পুলিশের এক ইন্সপেক্টরসহ পাঁচ সদস্য আহত হয়েছে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: