২২ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

সাভারে ভূমিকম্পে শ্রমিক নিহতের গুজবে গার্মেন্টসে হামলা


নিজস্ব সংবাদদাতা, সাভার, ২৫ এপ্রিল ॥ সাভারের উলাইল এলাকায় ‘আল-মুসলিম’ গ্রুপের তৈরি পোশাক কারখানায় শ্রমিকদের সঙ্গে পুলিশ ও কারখানার নিরাপত্তাকর্মীদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। ভূমিকম্পে শ্রমিক আহত হওয়ার ঘটনায় কর্তৃপক্ষের দায়িত্ব অবহেলার অভিযোগে এনে ও এক শ্রমিক নিহত হওয়ার গুজবে বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা কারখানায় হামলা চালালে পুলিশ ও নিরাপত্তাকর্মীদের সঙ্গে শ্রমিকদের দফায় দফায় সংঘর্ষ হয়। এতে উভয়পক্ষের ৫০ জন আহত হয়। এ সময় ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে ঘণ্টাখানেক যান চলাচল বন্ধ থাকে।

জানা গেছে, ১৮ হাজারের অধিক শ্রমিক কাজ করছিলেন ওই কারখানাটিতে। দুপুরে দু’দফা ভূমিকম্পে গোটা ভবনটি দুলে উঠলে শ্রমিকদের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় কারখানার মেশিনপত্র জায়গা থেকে সরে গেলে ও মাথার ওপর থাকা ফ্যান বিকট শব্দে নাড়াচাড়া করলে আতঙ্কিত হয়ে ওঠে কর্মরত শ্রমিকরা। প্রাণ বাঁচাতে শ্রমিকরা একযোগে হুড়োহুড়ি করে নামতে গিয়ে আহত হন শতাধিক শ্রমিক।

নারী শ্রমিক রোজিনা জানান, হুড়োহুড়ি করে নামতে গিয়ে পুরুষরা তাদের পিষ্ট করে আগে নেমে যাবার চেষ্টা করলে অধিকাংশ নারী শ্রমিক আহত হন।

লাভলি আক্তার নামে অপর এক নারী শ্রমিক জানান, ভবনটি ফাটল ধরেছে- হঠাৎ করেই এ গুজব ছড়িয়ে পড়লে তিনিসহ ওই ফ্লোরে থাকা অন্যরা আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। হুড়োহুড়ি করে কার আগে কে নামবেÑ তা নিয়ে শুরু হয় প্রতিযোগিতা। যারা শারীরিকভাবে অপেক্ষাকৃত দুর্বল, তারাই পদপিষ্ট হয়।

এদিকে, ‘এক শ্রমিক মারা গেছে’Ñ এমন গুজব ছড়িয়ে পড়লে বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা কারখানায় হামলা চালায়। এ সময় তাদের বাধা দেয় কারখানার নিরাপত্তারক্ষীরা। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাঠিচার্জ, রাবার বুলেট ও টিয়ারশেল ছুড়ে ছত্রভঙ্গ করে দেয় বিক্ষুব্ধ শ্রমিকদের। ত্রিমুখী এ সংঘর্ষে আহত হয় নিরাপত্তারক্ষীসহ প্রায় অর্ধশত।

এ ঘটনার পর অপ্রীতিকর ঘটনার আশঙ্কায় ওই পোশাক কারখানাসহ আশপাশের কারখানাগুলোতে একদিনের সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়। ‘আল মুসলিম’ কর্তৃপক্ষ বলেছে, আহতদের চিকিৎসার দায়িত্ব নেয়া হয়েছে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: