১৭ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

খালেদা জিয়াকে সতর্ক করেছেন রিটার্নিং কর্মকর্তা


স্টাফ রিপোর্টার ॥ সিটি নির্বাচনে নিজ দলের প্রার্থীর পক্ষে গাড়িবহর নিয়ে প্রচারে অংশ নিয়ে ‘অনাকাক্সিক্ষত’ পরিস্থিতি নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করায় বিএনপির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে সতর্ক করেছেন ঢাকার রিটার্নিং কর্মকর্তা। নির্বাচন কমিশনের নির্দেশনা অনুযায়ী শনিবার সকালে এ সংক্রান্ত চিঠি বিএনপি প্রধানের কাছে পাঠানো হয়েছে। গাড়িবহর নিয়ে ভোটের প্রচারে থাকা বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার ‘আচরণবিধি লঙ্ঘনের’ বিষয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তাদের ব্যবস্থা নিতে বলেছিল নির্বাচন কমিশন।

গত শনিবার থেকে ঢাকায় গাড়িবহর নিয়ে নির্বাচনী প্রচারে থাকা বিএনপি নেত্রী খালেদা মাঝখানে একদিন বিরতি দিয়ে শুক্রবারও প্রচার চালিয়েছেন। সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া এখন সরকারের লাভজনক কোন পদে না থাকায় আইন অনুযায়ী তার ভোটের প্রচারে থাকতে কোন বাধা নেই।

বৃহস্পতিবার নির্বাচন কমিশনে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ করেন সহস্র নাগরিক কমিটির সদস্য সচিব গোলাম কুদ্দুছ। এরপরই আচরণবিধি লঙ্ঘনের বিষয়ে বিএনপি চেয়ারপার্সনকে চিঠি দিতে বলে কমিশন।

রিটার্নিং কর্মকর্তা কার্যালয়ের একজন কর্মকর্তা জানান, নয়াপল্টনে বিএনপি কার্যালয়ে খালেদা জিয়ার ঠিকানায় ঢাকা উত্তরের রিটার্নিং কর্মকর্তা মিহির সারওয়ার মোর্শেদ স্বাক্ষরিত চিঠিতে গত ছয় দিনে বিএনপি নেত্রীর প্রচার কার্যক্রম আচরণবিধি পরিপন্থী হওয়ার বিষয়গুলো তুলে ধরা হয় এবং তাকে বিধি লঙ্ঘন থেকে বিরত থাকতে বলা হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, বিএনপি চেয়ারপার্সনের গাড়িবহর নিয়ে প্রার্থীর পক্ষে প্রচার চালানোর সময় সাধারণের চলাচলে বিঘœ ঘটছে। পাশাপাশি তার গাড়িবহরের ওপর কিছু ব্যক্তি অনাকাক্সিক্ষত পরিস্থিতির সৃষ্টি করছে। ১৮ এপ্রিল থেকে তার কার্যক্রম তুলে ধরে চিঠিতে বলা হয়, এসব কাজ আচরণবিধির পরিপন্থী, যা শাস্তিমূলক অপরাধ। চিঠিতে আরও বলা হয়, এসব বিধি আপনাকে অবগত করে এরূপ কাজ থেকে বিরত থাকার বিশেষ অনুরোধ করছি।

এর আগে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদকেও এ ধরনের চিঠি দেয়ার পর তিনি নির্বাচনী প্রচার থেকে সরে যান। আচরণবিধির ৯ ধারায় বলা হয়েছে, কোন প্রার্থী বা তার পক্ষে কোন ব্যক্তি বিধি লঙ্ঘন করলে সর্বোচ্চ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, সর্বোচ্চ ৬ মাসের দ- বা উভয় দ- হতে পারে।

সম্প্রতি বিএনপি সমর্থিত ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণের দুই মেয়রপ্রার্থী তাবিথ আউয়াল ও মির্জা আব্বাসকে সতর্ক করে ইসি। ওই সতর্ক বার্তায় খালেদা জিয়া গাড়িবহর নিয়ে প্রচার চালানোর বিষয়ে আপত্তি জানান রিটার্নিং কর্মকর্তারা।

আগামী ২৮ এপ্রিল ঢাকা সিটি কর্পোরেশন (ডিসিসি) উত্তর ও দক্ষিণ এবং চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের ভোটগ্রহণ করবে ইসি। আর প্রচার বন্ধ হবে ২৬ এপ্রিল মধ্যরাতে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: