১৮ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন


বিশেষ প্রতিনিধি ॥ ওয়ানডেতে ‘বাংলাওয়াশের’ পর পাকিস্তানের বিপক্ষে একমাত্র টি২০ ম্যাচেও বাংলাদেশের অভূতপূর্ব বিজয়ে গোটা দেশই ভাসছে উচ্ছ্বাস আর আনন্দে। আর এ উৎসবে শামিল হয়েছেন বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও। তাঁরা পৃথক বিবৃতিতে মাশরাফি বিন মর্তুজার নেতৃত্বাধীন টাইগারদের অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। এছাড়াও টাইগারদের অভিনন্দন জানিয়েছেন জাতীয় সংসদের স্পীকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী, ডেপুটি স্পীকার এ্যাডভোকেট ফজলে রাব্বি মিয়া। দৈনিক জনকণ্ঠ পরিবারের পক্ষ থেকেও অভিনন্দন বিজয়ী বীর ক্রিকেটারদের।

রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ একমাত্র টি২০ ম্যাচে বাংলাদেশের টাইগারদের কৃতিত্বপূর্ণ জয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল, কোচসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে অভিনন্দন জানিয়ে আশা প্রকাশ করে বলেন, আশা করি এ বিজয়ের ধারা অব্যাহত রাখবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব ইহসানুল করিম জনকণ্ঠকে এ তথ্য জানান।

শুধু অভিনন্দনই নয়, মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে গিয়ে টি২০ ম্যাচ উপভোগ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ম্যাচে পাকিস্তানী ব্যাটসম্যানদের যখন চেপে ধরেছে টাইগার বোলাররা, তখন লাইভ টেলিকাস্টে টেলিভিশন স্ক্রিনে দেখা যায় প্রধানমন্ত্রীকে। বিগ স্ক্রিনে প্রধানমন্ত্রীকে দেখানোর পরপরই মাঠে দর্শকদের মধ্যে দেখা যায় বাড়িত উচ্ছ্বাস। বাংলাদেশের অবিস্মরণীয় বিজয়ের পর জাতীয় পতাকা উড়িয়ে টাইগারদের অভিনন্দনও জানান প্রধানমন্ত্রী। এরপর টাইগারদের হাতে তুলে দেন টি২০ ম্যাচের দুর্লভ ট্রফিও। ক্রিকেটপ্রেমী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের প্রতিটি ম্যাচেরই খোঁজ রাখেন, খেলায় জয়ী হলে দলকে অভিনন্দিত করেন। শুক্রবারও তার ব্যত্যয় হয়নি।

পৃথক বিবৃতিতে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলকে অভিনন্দন জানিয়েছেন- বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া, তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন শিকদার, যুব ও ক্রীড়া উপমন্ত্রী আরিফ খান জয়, বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন, শেখ জামাল ধানমণ্ডি ক্লাবের প্রেসিডেন্ট মনজুর কাদের, বাংলাদেশ অলিম্পিক এ্যাসোসিয়েশনের মহাসচিব সৈয়দ শাহেদ রেজাসহ অনেকে।