২২ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

নড়াইলে বোরোর ফলনে খুশি কৃষক


নিজস্ব সংবাদদাতা, নড়াইল, ২৩ এপ্রিল ॥ জেলার তিনটি উপজেলার অধিকাংশ এলাকার কৃষকরা বোরো ধান কাটা শুরু করেছে। মাসখানেক চলবে ধানকাটা ও মাড়াইয়ের উৎসব। ফলে কৃষক পরিবারের সদস্যরা এখন ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন।

কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, ২০১৪-১৫ মৌসুমে ৪০ হাজার ৭২২ হেক্টর জমিতে বোরো ধানের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হলে আবাদ হয়েছে ৪১ হাজার ৭৩০ হেক্টরে। গত মৌসুমের চেয়ে চলতি মৌসুমে বোরোর আবাদ যেমন বেড়েছে, তেমনি ফলনও ভাল হয়েছে বলে জানিয়েছেন কৃষকরা। লোহাগড়া উপজেলার কুন্দশী গ্রামের শাহাবউদ্দীন বলেন, চারদিকে এখন নতুন ধানের সুবাস, নতুন স্বপ্ন, নবউদ্যম। বয়োবৃদ্ধ আবুল খায়ের জানান, এ বছর ফলন ভাল হয়েছে। তিন শতক জমিতে দেড় থেকে দুই মণ করে ধান ঘরে তুলতে পারবেন বলে আশা করছেন তিনি।

লোহাগড়া উপজেলার চর-কালনা গ্রামের কৃষক সিরাজ শেখ ও মাসুদ মোল্যা জানান, বর্তমানে প্রতি মণ ধান ৬০০ থেকে ৬৫০ টাকা বিক্রি হচ্ছে। তবে প্রতি মণ ধান ৭৫০ থেকে ৮০০ টাকা দরে বিক্রি হলে কৃষকরা বেঁচে থাকবে। কালনা গ্রামের কৃষক আলিফ মিয়া বলেন, বাজারে এখন ধানের দাম অনেক কম। এড়েন্দা হাটে মণপ্রতি ৫৫০ থেকে ৬০০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। এক্ষেত্রে সরকারী নজরদারি প্রয়োজন। এদিকে শ্রমিক সঙ্কট ও উচ্চমূল্যের কারণে ধানকাটা এবং ফসল ঘরে তোলা নিয়ে দুশ্চিন্তায় আছেন কৃষকরা। বিভিন্ন হাটে জনপ্রতি ৪০০ টাকা হারে শ্রমমূল্য বিক্রি হয়েছে।

এ ব্যাপারে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর নড়াইলের উপ-পরিচালক শেখ আমিনুল হক সাংবাদিকদের বলেন, এ বছর লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি জমিতে বোরোর আবাদ হয়েছে। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় ফলনও ভাল হয়েছে। ইতোমধ্যে ব্রি-২৮ ধান কর্তন শুরু হয়েছে। প্রতি হেক্টরে ৩ (তিন) দশমিক ৮ (আট) মেট্রিক চাল উৎপাদন হচ্ছে।