২৪ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৭ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

সিটি নির্বাচনে সেনা মোতায়েনে ইসির সিদ্ধান্তে কিছু রদবদল


স্টাফ রিপোর্টার ॥ ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ এবং চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে সেনা মোতায়নের বিষয়ে সিদ্ধান্ত কিছুটা পাল্টিয়েছে নির্বাচন কমিশন। সেনা মোতায়েনের বিষয়ে মঙ্গলবারের দেয়া চিঠি পাল্টে নতুন একটি চিঠি সশস্ত্রবাহিনী বিভাগে পাঠিয়েছে নির্বাচন কমিশন। নতুন চিঠিতে বলা হয়েছে, সেনা সদস্যরা সেনানিবাসের ভেতরেই থাকবেন। রিটার্নিং কর্মকর্তা অনুরোধ করলে তারা বাইরে আসবেন।

বিএনপির ক্রমাগত দাবির মুখে অনিচ্ছা নিয়েই মঙ্গলবার সেনা মোতায়েনের সিদ্ধান্ত জানিয়ে ২৮ এপ্রিলের ভোটের জন্য তিন ব্যাটালিয়ন সৈন্য চেয়ে সশস্ত্রবাহিনী বিভাগকে চিঠি দিয়েছিল ইসি। সেনাবাহিনী ‘স্ট্রাইকিং ফোর্স’ হিসেবে থাকবে বলে মঙ্গলবার সিইসি কাজী রকিবউদ্দীন আহমদ সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন। এর প্রতিক্রিয়ায় সেনাবাহিনীকে বিচারিক ক্ষমতা দিয়ে মাঠে রাখার দাবি জানায় বিএনপি।

এর মধ্যেই বুধবার ইসি থেকে আরেকটি চিঠি যায় সশস্ত্রবাহিনী বিভাগের প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসারের কাছে। চিঠিতে দেখা যায়, মঙ্গলবারের তারিখেই চিঠিটি পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে জানতে চাইলে ইসির নির্বাচন পরিচালনা শাখার উপসচিব সামসুল আলম বলেন, দ্বিতীয় চিঠিটি আগের চিঠির স্থলাভিষিক্ত হবে। বুধবার সন্ধ্যার পর পাঠানো চিঠিটি নিয়ে আর কোন মন্তব্য করতে চাননি তিনি।

দুটি চিঠি বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, দুটির ভাষা প্রায় একই রকম। শুধু একটি স্থানে পরিবর্তন এসেছে। মঙ্গলবার পাঠানো চিঠিতে বক্তব্য ছিলÑ ‘তারা মূলত স্ট্রাইকিং ফোর্স এবং রিজার্ভ ফোর্স হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন। রিটার্নিং কর্মকর্তা ডাকলেই তারা পরিস্থিতি মোকাবেলা করবেন।’ নতুন চিঠিতে এই বাক্যটি প্রতিস্থাপিত হয়েছে এভাবেÑ ‘তারা (সেনাবাহিনী) মূলত সেনানিবাসের অভ্যন্তরে রিজার্ভ ফোর্স হিসেবে অবস্থান করবেন এবং রিটার্নিং কর্মকর্তার অনুরোধে স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে তারা পরিস্থিতি মোকাবেলা করবেন।’

এদিকে আজ বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আইনশৃঙ্খলা মোতায়েন পরিস্থিতি নিয়ে একটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।