২৩ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৪ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

সোনামসজিদ বন্দরে এবার পাথরে শুল্ক ফাঁকি


স্টাফ রিপোর্টার, চাঁপাইনবাবগঞ্জ ॥ আবারও রাজস্ব ফাঁকির মহোৎসব শুরু হয়েছে সোনামসজিদ স্থলবন্দরে। এবার পাথর আমদানিকারকদের হয়ে সিএ্যান্ডএফ এজেন্টরা ব্যাপকভাবে রাজস্ব ফাঁকি দেয়া শুরু করেছে। উল্লেখ্য ভারতের সর্ববৃহৎ ও উৎকৃষ্টমানের পাথরখনি রয়েছে বিহারের পাকুড়ে। আর সোনামসজিদ থেকে পাকুড়ের দূরত্ব অন্যান্য বন্দরের চেয়ে কম হওয়ার কারণে বাংলাদেশের উন্নয়ন কাজে ব্যবহৃত পাথরের সিংহভাগ আমদানি হয়ে থাকে সোনামসজিদ স্থলবন্দরে হয়ে। এমনকি পদ্মা সেতুর পাথরও প্রবেশ করছে সোনামসজিদ বন্দর দিয়ে। বিধায় হামলে পড়া পাথর আমদানিকারকরা যথাস্থান ম্যানেজ করে ঘোষণার অতিরিক্ত পাথর নিয়ে আসছে। আর এ অতিরিক্ত পাথর থেকে সরকার বঞ্চিত হচ্ছে রাজস্ব। গত মার্চে শুধু পাথর থেকে রাজস্ব ফাঁকি দিয়েছে কয়েক কোটি টাকা। একই ধারায় ১৯ এপ্রিল পর্যন্ত পাথর থেকে রাজস্ব ফাঁকির পরিমাণ কোটি টাকা ছাড়িয়ে গেছে। সূত্র জানায়, পাথর থেকে সরকার টন প্রতি রাজস্ব পেয়ে থাকে ৯শ’ টাকা। আর প্রতি ট্রাকে ঘোষণার অতিরিক্ত থাকে পাঁচ থেকে ১০ টন। মার্চে দুই হাজারের অধিক ট্রাক অতিরিক্ত পাথর নিয়ে সোনামসজিদ বন্দরে ঢুকেছে। বন্দরের কামাল এ্যান্ড ব্রাদার্স, শাহ এন্টারপ্রাইজ, বাবু এন্টারপ্রাইজ, সোহেল এন্টারপ্রাইজ, মমিন এন্টারপ্রাইজসহ একাধিক আমদানিকারকের মেনুফেস্টো দেখে রাজস্ব ফাঁকির তথ্য মিলেছে।