২৩ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

খালেদার নির্বাচনী প্রচারে বাধা অনভিপ্রেত ॥ রিপন


স্টাফ রিপোর্টার ॥ খালেদা জিয়াকে নির্বাচনী প্রচারে বাধা প্রদান ও কালো পতাকা প্রদর্শনকে অনভিপ্রেত ও উস্কানিমূলক বলে মনে করছে বিএনপি। একই সঙ্গে তার বিরুদ্ধে নির্বাচনী প্রচারে অংশগ্রহণ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী ও মন্ত্রীদের অশালীন ও উল্টাপাল্টা বক্তব্যের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে নির্বাচন কমিশনের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে দলটির পক্ষ থেকে।

সোমবার দুপুরে দলের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক আসাদুজ্জামান রিপন এ আহ্বান জানান। নয়াপল্টন দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, রবিবার উত্তরায় নির্বাচনী প্রচার চালানোর সময় খালেদা জিয়াকে কালো পতাকা প্রদর্শন ও পথে পথে তার গাড়িবহরকে বাধা দেয়া হয়েছে। এ ঘটনার মাধ্যমে শাসক দল নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশকে সহিংসতার দিকে ঠেলে দেয়ার পরিকল্পনা করছে। সিটি নির্বাচন নিয়ে এসব ঘটনা সুষ্ঠু রাজনৈতিক পরিবেশ তৈরির প্রচেষ্টাকে ভূলুণ্ঠিত করবে। সুষ্ঠু নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রীর অঙ্গীকার বাস্তবায়নের আহ্বান জানান। এ সময় বিএনপি সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থীদের গ্রেফতার, প্রার্থীদের প্রচারে বাধা দেয়ার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

এ সময় তিনি অভিযোগ করেন, সোমবার সকাল থেকে বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার বাসার সামনে থেকে নিয়মিত নিরাপত্তায় থাকা পুলিশ সরিয়ে নেয়া হয়েছে। এটি একটি ইঙ্গিতপূর্ণ। তবে ঠিক কি কারণে পুলিশ সরিয়ে নেয়া হয়েছে তা নিশ্চিত নই। খালেদা জিয়া বাংলাদেশের প্রথম শ্রেণীর নাগরিক, তিন বারের প্রধানমন্ত্রী ও সাবেক বিরোধীদলীয় নেত্রী। তার নিরাপত্তা দেয়া সরকার ও রাষ্ট্রের দায়িত্ব বলে তিনি উল্লেখ করেন।

খালেদা জিয়ার নির্বাচনী প্রচারের আচরণবিধি লংঘনের সরকারী দলের অভিযোগ সম্পর্কে বলেন, এ ধরনের আচরণ নির্বাচনের পরিবেশকে উত্তপ্ত করে তুলছে। বিএনপির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া এখন সরকারী কোন পদে নেই। তাই আইন অনুযায়ী নির্বাচনী প্রচারে তাঁর কোন বাধা নেই। সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা ও সাবেক সংসদ সদস্য মেজর জেনারেল (অব.) মাহমুদুল হাসান, শ্রমিক দলের সভাপতি আনোয়ার হোসাইন ও বিএনপির সহ-দফতর সম্পাদক শামীমুর রহমান শামীম উপস্থিত ছিলেন।

খালেদা সঙ্গে তাবিথ আউয়ালের সাক্ষাত

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বাসায় গিয়ে দেখা করেছেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ২০ দল সমর্থিত মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল। সোমবার রাত ১০টা ৪০ মিনিটে তিনি খালেদার গুলশানের বাসায় গিয়ে দেখা করে ১১টার দিকে বেরিয়ে যান। এ সময় তাঁর সঙ্গে ছিলেন বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য জেবা খান। তিনি খালেদা জিয়ার সঙ্গে কী নিয়ে আলোচনা করেছেন তা জানা না গেলেও আসন্ন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন নিয়ে তাঁরা খালেদার সঙ্গে আলোচনা করেছেন বলে মনে করা হচ্ছে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: