১৮ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সীমান্তে বিএসএফের নির্যাতনে দুই বাংলাদেশী নিহত


স্টাফ রিপোর্টার, চাঁপাইনবাবগঞ্জ ॥ চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জের দুটি সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) নির্যাতনে দুই বাংলাদেশী গরু ব্যবসায়ী নিহত হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। নিহতরা হলেন, মনাকষা ইউনিয়নের খড়িয়াল গ্রামের গোলাপ হোসেনের ছেলে শরিফ (২৫) ও তারাপুর ঠুঠাপাড়া গ্রামের মৃত সাহেব আলীর ছেলে আব্দুল হাকিম (৩৫)।

ঠুঠাপাড়া গ্রামের নিহত হাকিমের বড় ভাই উকিল ও শরিফের পিতা গোলাপ হোসেন জানান, মঙ্গলবার গভীর রাতে শিবগঞ্জ উপজেলার দুর্লভপুর ইউনিয়নের রঘুনাথপুর সীমান্ত দিয়ে শরিফ ও পাঁকা ইউনিয়নের ফতেপুর সীমান্ত এলাকা দিয়ে আব্দুল হাকিমসহ প্রায় ৮/১০ জন গরু ব্যবসায়ী চোরাইপথে ভারত যায় এবং বুধবার ভোরে ভারত থেকে গরু নিয়ে আসার সময় বিএসএফের সাব ঘাঁটি ক্যাম্পের সদস্যরা হাকিম ও শরিফকে ধরে অমানবিক নির্যাতন চালায়। ঘটনাস্থলেই হাকিম মারা গেলে তার লাশ বাংলাদেশ অভ্যন্তরে পদ্মার চরে ফতেপুর সীমান্তে এবং গুরুতর আহত শরিফকে একই এলাকায় ফেলে দেয়। স্থানীয় লোকজন বুধবার বিকেলে দুইটি লাশ দেখতে পেয়ে বিজিবি ক্যাম্পে খবর দেয়। খবর পেয়ে বিজিবি ঘটনাস্থলে যায় এবং তারা পুলিশকে জানায়। পরে রাতে পুলিশ নিহত হাকিমের লাশ উদ্ধার করে বৃহস্পতিবার চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে। এদিকে স্থানীয়রা গুরুতর আহত শরিফকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার রাতে সে মারা যায়। চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৯ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল আবু জাফর সেখ মোহাম্মদ বজলুর হক জানান, সীমান্তে দুই গরু ব্যবসায়ীকে নির্যাতন করে হত্যার ঘটনায় বুধবার রাতেই বিএসএফের কাছে প্রতিবাদ জানানো হয়েছে। তাদের শরীরে আঘাতের চিহ্ন ছিল। তিনি জানান, বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় ফতেপুর সীমান্তে বিজিবি ও বিএসএফের মধ্যে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। ওই বৈঠকে বিজিবি এ ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে। তবে পতাকা বৈঠকে বিএসএফ দুই বাংলাদেশীকে হত্যার ঘটনা অস্বীকার করেছে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: