২৩ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

লতা মুঙ্গেশকরের ভালো লেগেছিল যে গান


১২ বছর বয়সে প্রথম গান গাওয়া সিনেমাতে। প্রথমদিকে গাইতে গিয়ে পরিবারের সাপোর্ট পাইনি, বিশেষ করে বাবার কাছ থেকে। আর ছোটবেলা থেকেই নিজের ইচ্ছে ছিল বড় কিছু করার বা হওয়ার। আর সেই ইচ্ছা থেকেই প্রথমে চার বছর নাচ শেখা আর তারপর বড় বোনের (দিনা লায়লা) দেখাদেখি গান শেখা শুরু। যখন রেডিওতে গান শুনতাম খুব ইচ্ছে হতো গান গাইতে কিন্তু সাহস হয়নি তেমন। আমার গানের হাতেখড়ি হয় ওস্তাদ গোলাম কাদের আর ওস্তাদ হাবিব উদ্দিন আহমদের হাত ধরে। গজল শেখায় তালিম দিয়েছেন প-িত গোলাম কাদের সাহেব। বড় বোনের পাশে বসে বসে আসলে শুরু করা। আর বাসা থেকে প্রথমে তেমন সাপোর্ট পাইনি পরে যখন সিনেমায় গানের কথা হোল তখন প্রথমে বাবার অনীহা থাকলেও পরে আর তা ছিল না আর সেই থেকে শুরু। বলতে পারেন মায়ের জন্য এতখানি আসা।

জীবনের বড় প্রাপ্তি...

জীবনে বড় প্রাপ্তি পেয়েছিলাম ইন্ডিয়ান হাইকমিশনের নিমন্ত্রণে প্রথম যেবার গান গাইতে যাই বম্বেতে। তাঁরা জিজ্ঞেস করেছিলেন আমাকে ‘তোমার কোন ইচ্ছে আছে কিনা?’ তখন বলেছিলাম যদি সম্ভব হয় লতাদির (লতা মুঙ্গেশকর) সাথে দেখা করতে চাই। তবে কর্তৃপক্ষ বিষয়টিকে প্রায় অসম্ভব বলে উড়িয়ে দিয়েছিলেন। কিন্তু অনুষ্ঠানের দিন ব্যাক স্টেজে বসে গান গাইবার জন্য অপেক্ষা করছিলাম ঠিক তখনই সাদা শাড়ি পরা এক ভদ্র মহিলা হাতে ফুল নিয়ে আমার সামনে দাঁড়ান। আমি বুঝতেই পারিনি ইনিই লতাদি। যখন চিনতে পারি তখন লতাদি আমার গানের প্রশংসা করে আমার হাতে তুলে দেন একগুচ্ছ লাল গোলাপ। আর বলেন ‘তোমার গান শুনেছি, আমার ভাল লেগেছে।’

তাদের সঙ্গে আমার তুলনা চলে না...

লতাদি কিংবা আশাদির সঙ্গে আমার তুলনা চলে না। তাঁরা লিজেন্ড! আর আমি আমার মতো করে নিজের এক আলাদা অবস্থান তৈরি করেছি। আর এ সম্ভব হয়েছে আপনাদের আশীর্বাদ ও পরিবারের অনুপ্রেরণার কারণে।

বর্তমান সময়ের প্রিয় সঙ্গীতশিল্পী...

তরুণদের মধ্যে অনেকেই এখন ভাল গায়। সেরকম করে কাউকে আলাদা করে বলার কিছুই নেই। তবে বাপ্পার গান আমি পছন্দ করি। ও ভাল গায়। আর আমার খুবই পছন্দের ও শ্রদ্ধেয় একজন রয়েছে। তিনি ফেরদৌসী রহমান আপা। তার গান আমি সব সময় শুনতে পছন্দ করি।

যে গান খুবই প্রিয়...

আমার সব গানই আমার কাছে প্রিয়। তবে আমার অসংখ্য গানের মধ্যে একটি গান সবসময়ই গাইতে ইচ্ছে হয় আর সেটা হলো- যখন থামবে কোলবো, ঘুমে নিঝুম চারিদিক’।