২৩ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৩ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

নারায়ণগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় ভেঙ্গে গেল হাসপাতাল নির্মাণের স্বপ্ন


নিজস্ব সংবাদদাতা, নরসিংদী, ১১ এপ্রিল ॥ ডাঃ নুরুজ্জামান খোকন স্বপ্ন দেখেছিলেন, পৈতৃকভাবে পাওয়া জমিতে গড়ে তুলবেন আধুনিক হাসপাতাল। সেখান থেকে বিনা মূল্যে চিকিৎসা পাবে গরিব দুখী মানুষ। শুক্রবার রাতে নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারায় স্বপ্নিল এই মানুষটি। সঙ্গে প্রাণ হারিয়েছে তাঁর বড় বোন ফেরদৌসি রহমান (৫০)। আহত হয়েছে বোন জামাতা, শিশু নাতি ও চালক।

নিহত ডাঃ নুরুজ্জামান খোকন নরসিংদী সদর উপজেলার শান্তিভাওলা গ্রামের মৃত ডাঃ আহমদ আলীর ছেলে। তিনি টাঙ্গাইলের সখিপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অর্থোপেডিক্স বিভাগের জুনিয়র কনসালটেন্ট হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

নিহতদের পরিবারের লোকজন সূত্রে জানা যায়, ডাঃ নুরুজ্জামান খোকন প্রতি শুক্রবার টাঙ্গাইল থেকে নরসিংদীতে এসে দুই ক্লিনিকে রোগী দেখতেন। এরই ধারাবাহিকতায় গত শুক্রবার রাতে রোগী দেখা শেষে মাধবদীতে অসুস্থ এক আত্মীয়কে দেখতে যান। সেখান থেকে রাত সাড়ে ১০টার দিকে বড় বোন ফেরদৌসি রহমান, বোন জামাতা শামসুর রহমান ও ৫ বছরের শিশু নাতি মাহি রহমানকে নিয়ে ঢাকার স্বামীবাগের নিজের বাসায় ফিরছিলেন। পথিমধ্যে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের আড়াইহাজারের ছনপাড়া এলাকায় মালবাহী লরি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাড়িটিকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই ডাঃ নুরুজ্জামান খোকনের মৃত্যু হয়। আহত অবস্থায় বাকিদের ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক বড় বোন ফেরদৌসি রহমানকে মৃত ঘোষণা করে। নিহতের ভাতিজা শাহরুখ ইশতিয়াক খাঁন শাকিব বলেন, ওনি এলাকার মানুষদের বিনা মূল্যে চিকিৎসা সেবা দিতে হাসপাতাল তৈরির জন্য বাড়ির সামনের নিচু জমিটি মাটি ভরাট করেছিল। কিন্তু স্বপ্নের হাসপাতাল করার আগেই ঘাতক লরি চাচার জীবন কেড়ে নিল।