২২ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

মিসরের পিরামিড ॥ আইএস জঙ্গীদের নয়া নিশানা


প্রাচীন এ্যাসিরীয় সভ্যতার প্রায় সব নিদর্শনই ধুলোয় মিশিয়ে দিয়েছে ইসলামিক স্টেট (আইএস) জঙ্গীরা। ইরাকের শতাব্দী প্রাচীন এই সভ্যতার ভগ্নপ্রায় স্থাপত্যের ছিটেফোঁটাও আর থাকতে দেবে না বলে হুমকিও দিয়েছে তারা। এবার ইরাক-সিরিয়ার বাইরে মিসরের স্ফিংস এবং পিরামিডের মতো স্থাপত্য ধ্বংস করার ডাক দিয়েছে তারা।

সম্প্রতি সৌদি আরবের একটি সংবাদপত্রে এই নিয়ে একটি খবর প্রকাশিত হয়েছে। সেই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আইএস জঙ্গী গোষ্ঠীর প্রধান আবুবকর আল-বাগদাদি স্বয়ং মিসরের শতাব্দী প্রাচীন স্থাপত্যে আঘাত হানার ডাক দিয়েছেন। তাকে সম্পূর্ণ সমর্থন জানিয়ে ইতোমধ্যেই বিবৃতি দিয়েছে কুয়েতের এক আইএস প্রচারক। ওই প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, ইরাক ও সিরিয়ার বিভিন্ন ঐতিহাসিক স্থানে লাগাতার হামলা চালানোর পরে, মিসরের স্ফিংস এবং পিরামিডের উপরেও আঘাত হানা অত্যন্ত জরুরী বলেই মনে করছেন আইএসের শীর্ষ নেতারা।

এই খবরের সত্যতা স্বীকার করে আরেকটি সংবাদ প্রকাশ করেছে ইরানের একটি সংবাধমাধ্যম। সেখানে আল-বাগদাদিকে উদ্ধৃত করে লেখা হয়েছে, ধর্মীয় কারণেই ঐতিহাসিক স্থাপত্য ধ্বংস করা জরুরী। এই মন্তব্যের কারণ ব্যাখ্যা করতে গিয়ে এই জঙ্গীনেতা দাবি করেছেন, প্রথম থেকেই মূর্তিপুজোর বিরোধিতা করে আসছেন তারা। এ্যাসিরীয় সভ্যতার ধ্বংসাবশেষ মাটিতে মিশিয়ে দেয়ার পরে আইএসের এই হুমকিতে স্বভাবতই নতুন করে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। বিশ্বের ঐতিহাসিক স্থানগুলোর সুরক্ষা নিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করছেন বিশেষজ্ঞরা। -ওয়েবসাইট