২০ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট পূর্বের ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

পাবনায় ৯ বছরেও শেষ হয়নি ব্রিজ নির্মাণের কাজ


নিজস্ব সংবাদদাতা, পাবনা, ৯ এপ্রিল ॥ চাটমোহর উপজেলার অষ্টমনিষা ইউনিয়নের গুমাণী নদীর ওপর নির্মাণাধীন ব্রিজটি ৯ বছরেও শেষ হয়নি। দীর্ঘকাল ধরে নির্মাণ কাজ চলায় চাটমোহর-ভাঙ্গুড়া উপজেলার লাখ লাখ মানুষকে বিড়ম্বনার মধ্যে যাতায়াত করতে হচ্ছে। ব্রিজটি অবিলম্বে নির্মাণ দাবিতে এলাকাবাসী মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছে।

জানা গেছে, এলজিইডির আওতাধীন অষ্টমনিষা ইউনিয়নের গুমাণী নদীর ওপর একশ’ ৬৫ মিটার দীর্ঘ এ ব্রিজটি ২০০৬ সালে টেন্ডার আহ্বান করা হয়। বিশ্ব ব্যাংকের অর্থায়নে রাস্তাসহ গুমাণী ব্রিজের ১৬ কোটি টাকার প্যাকেজে কাজটি পায় ঢাকার ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ফাউন্ডেশন লিমিটেড। প্যাকেজের অন্যান্য কাজ শেষে ব্রিজের কাজ ধরা হয়। নিম্নমানের কাজের জন্য ওই ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের কার্যাদেশ ২০০৮ সালে বাতিল করা হয়। এরপর ব্রিজ নির্মাণের কাজ বন্ধ হয়ে যায়। গুমাণী নদী পার হয়েই চাটমোহর ও ভাঙ্গুরা উপজেলায় যাতায়াত করতে হয়। অষ্টমনিষা ও মির্জাপুর ইউনিয়নের সেতুবন্ধন গুমাণী নদী। গুমাণী নদীর উত্তর পাশে নিমাইচড়া ইউনিয়ন পরিষদ, দক্ষিণে অষ্টমনিষা ইউনিয়ন পরিষদসহ দু’পাড়ে স্কুল কলেজ ও গুরুত্বপূর্ণ বেশ কয়েকটি হাটবাজার রয়েছে। গুমাণী নদীর পূর্বপাড়ে উপজেলার শিল্পসমৃদ্ধ মির্জাপুর বাজার অবস্থিত। এ বাজারে রয়েছে অর্ধশতাধিক চাল মিল।

প্রতিদিন নৌকায় করে গুমাণী পার হয়ে হাজার হাজার লোকের যাতায়াত করতে হয়। খেয়া নৌকার অপেক্ষায় প্রতিদিন দু’পাড়ের যাত্রীদের বিড়ম্বনার শিকার হতে হচ্ছে। এলাকাবাসী ব্রিজটি অবিলম্বে নির্মাণ দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল পর্যন্ত করেছে। এ ব্যাপারে চাটমোহর উপজেলা প্রকৌশলী মনিরুল ইসলাম জানিয়েছেন, ব্রিজটি নির্মাণে ৬ কোটি ৯০ লাখ টাকার এস্টিমেট পিডি অফিসে পাঠানো হয়েছে। পিডি অফিস থেকে তা বিশ্বব্যাংক কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়টি এখন প্রক্রিয়াধীন।