২২ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

গ্রীসের বড় প্রকল্পে ঋণ দেবে রাশিয়া ॥ পুতিন


রুশ প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন বলেছেন যে, সফররত গ্রীক প্রধানমন্ত্রী আলেক্সিস সিপরাস মস্কোতে আলোচনাকালে রাশিয়ার কাছে সরাসরি আর্থিক সহায়তা চাননি। সিপরাস গ্রামের ঋণ সঙ্কট কাটিয়ে উঠতে এবং এর ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) ঋণদাতাদের চাপ মোকাবেলা করতে রাশিয়ার সহায়তা চাইবেন বলে জল্পনা চলছিল। পুতিন বলেন, রাশিয়া গ্রীসকে বড় বড় যৌথ প্রকল্পে সম্ভবত জ্বালানি খাতে ঋণ দেয়ার কথা বিবেচনা করবে। তবে বিশ্লেষকরা বলছেন, রাশিয়ায় নিজস্ব অর্থনৈতিক দুর্দশার কারণে যে কোন সহায়তাই সীমিত হবে।

সিপরাস মঙ্গলবার রাতে মস্কো পৌঁছান। তিনি তাঁর দেশের দেউলিয়াত্ব এড়ানোর জন্য প্রয়োজনীয় আন্তর্জাতিক আর্থিক সহায়তা নিয়ে অন্যান্য ইউরোপীয় নেতার সঙ্গে কঠিন আলোচনায় লিপ্ত রয়েছেন। তাঁর সফর ইউরোপজুড়ে উদ্বেগের সঞ্চার করেছে। কারণ তিনি পুতিনের সঙ্গে সুসম্পর্ক গড়ে ইইউর কাছ থেকে সুবিধা আদায়ের চেষ্টা করতে পারতেন বলে ধারণা করা হয়।

আর পুতিন ইইউতে বিভেদ সৃষ্টি করে আগামী গ্রীষ্মকালে অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা নতুন করে অনুমোদন করা ইইউর জন্য অসম্ভব করে তোলার কৌশল নিতে পারেন বলেও সন্দেহ করা হয়। ক্রেমলিনের ক্রিমিয়া দখলের পর রাশিয়ার ওপর ঐসব নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয় এবং আগস্টে রুশ সেনাবাহিনীর দক্ষিণ-পূর্ব ইউক্রেন আক্রমণের পর তা আরও কঠোর করা হয়।

ক্রেমলিনে বুধবার এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে দু’নেতা বলেন, তাদের আলোচনায় বাণিজ্য, পর্যটন ও জ্বালানি ইস্যুসহ অর্থনৈতিক ইস্যুগুলোর দিকে দৃষ্টি দেয়া হয়।

সিপরাস আর্থিক সহায়তার জন্য সরাসরি আহ্বান জানাতে তাঁর মস্কো সফরকে কাজে লাগাবেন না বলে গ্রীক কর্মকর্তারা আগেই জানিয়েছিলেন। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী রাশিয়ার ওপর পাশ্চাত্যের আরোপিত নিষেধাজ্ঞাকে নিষ্ফল বলে প্রকাশ্যে সমালোচনা করেছিলেন। এতে তাঁর সফর ক্রেমলিনের ইউক্রেন নীতি নিয়ে ইউরোপের ঐক্যে ফাটল ধরার প্রমাণ বলে উদ্বেগ বৃদ্ধি পায়। গ্রীস বেইল আউটের অর্থ ছাড় করানোর বিষয়ে ইইউর সঙ্গে দর কষাকষিতে নিজের অবস্থানকে শক্তিশালী করতে রাশিয়ার সঙ্গে সম্পর্কোন্নয়নের পদক্ষেপকে কাজে লাগাবে বলে তাঁর সফরের আগেই ক্রমেই জল্পনা চলতে থাকে। দৃশ্যত ঐ জল্পনার প্রতি ইঙ্গিত করেই সিপরাস বলেন, গ্রীস এক সার্বভৌম রাষ্ট্র এবং এর নিজস্ব বৈদেশিক নীতিনির্ধারণের এক সন্দেহাতীত অধিকার রয়েছে।

সিপরাস ইউক্রেনে মস্কোর ভূমিকা নিয়ে রাশিয়ার ওপর ইইউর আরোপিত নিষেধাজ্ঞার অবসান ঘটানোর আহ্বান জানান। পুতিন গ্রীসের সঙ্গে বাণিজ্যিক সম্পর্ক পুনরুদ্ধারের আহ্বান জানান। তিনি বলেন, দু’নেতা জ্বালানি খাতের বড় বড় প্রকল্পসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে সহযোগিতার বিষয়ে কথা বলেছেন।খবর বিবিসি ও নিউইয়র্ক টাইমসের।