২১ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৭ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

আব্দুল আউয়াল মিন্টুর আপীল শুনানি কাল


স্টাফ রিপোর্টার ॥ ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে মনোনয়নপত্র বাতিলের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে দায়ের করা রিট খারিজের বিরুদ্ধে করা আবদুল আউয়াল মিন্টুর আবেদন আপীল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে পাঠিয়েছেন।

এ বিষয়ে চেম্বার জজ কোন আদেশ দেননি। এ বিষয়ে শুনানি অনুষ্ঠিত হবে বৃহস্পতিবার। মঙ্গলবার দুপুরে চেম্বার জজ হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী এ আদেশ দিয়েছেন।

আব্দুল আউয়াল মিন্টুর পক্ষে শুনানি করেন তার আইনজীবী ব্যারিস্টার রোকনউদ্দিন মাহামুদ ও বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন এ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। সকালে মিন্টুর পক্ষে এ আপীল আবেদনটি দাখিল করেন ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন। সোমবার মনোনয়নপত্র বাতিলের বিরুদ্ধে আব্দুল আউয়াল মিন্টুর রিট আবেদন খারিজ করে দেন বিচারপতি ফারাহ মাহবুব ও কাজী মোঃ ইজারুল হক আকন্দের হাইকোর্ট দ্বৈত বেঞ্চ। এর আগে রবিবার এ রিট আবেদন করেন ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন।

গত ২৯ মার্চ ডিএনসিসি নির্বাচনে মেয়র পদে মিন্টুর মনোনয়নপত্র দাখিল করলেও তা বাতিল হয়। গত ১ এপ্রিল মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের সময় আবদুল আউয়াল মিন্টুর মনোনয়নপত্র বাতিল করে দেন রিটার্নিং কর্মকর্তা। পরদিন ২ এপ্রিল আইনজীবীর মাধ্যমে আপীল কর্তৃপক্ষ ঢাকা বিভাগীয় কমিশনার মোঃ জিল্লার রহমানের কাছে আপীল করেন মিন্টু।

গত শনিবার সেগুনবাগিচায় বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ে শুনানি শেষে আপীল আবেদন নামঞ্জুর করেন বিভাগীয় কমিশনার।

সিটি নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থীদের মামলার আগাম জামিন দাবি

স্টাফ রিপোর্টার ॥ আসন্ন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে যে সকল প্রার্থীদের বিরুদ্ধে মামলা আছে ‘নির্বাচনের দিন পর্যন্ত তাদের আগাম জামিন’ চান বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা। মঙ্গলবার বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা ও সুপ্রীমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি খন্দকার মাহবুব হোসেন বিচারপতি কামরুল ইসলাম সিদ্দিকী ও বিচারপতি গোবিন্দ চন্দ্র ঠাকুরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চে এ আবেদন জানান।

পরে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বেশ কিছুদিন ধরে হাইকোর্ট আগাম জামিন দিচ্ছে না। তাই আমরা আদালতে বলেছি যারা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন তারা যেন নির্বিঘেœ প্রচার করতে পারেন, সেজন্য যাদের বিরুদ্ধে মামলা রয়েছে তাদের যেন আগাম জামিন দেয়া হয়।

খন্দকার মাহবুব বলেন, আদালত বলেছেন, আপনারা যথোপযুক্ত আবেদন নিয়ে আসেন। আমরা বিবেচনা করে দেখব। তিনি বলেন, ‘প্রধান বিচারপতি তার সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বলেছিলেন, যথাযথ মামলায় আগাম জামিন দেয়া হবে। সেজন্য আমরা হাইকোর্টে বলেছি, আপনারা আবেদনগুলো গ্রহণ করে শুনানি করুন। এরপর যেগুলো আপনাদের কাছে যুক্তিসঙ্গত হবে, সেগুলোতে আগাম জামিন মঞ্জুর করবেন।