২২ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

গাইবান্ধায় অবাধে চলছে ‘কাঁকড়া’ ॥ জনদুর্ভোগ


নিজস্ব সংবাদদাতা, গাইবান্ধা, ০৬ এপ্রিল ॥ জেলা শহরের সর্বত্র অবাধে চলাচল করছে স্থানীয় ভাষায় কাঁকড়া নামের ট্রাক্টর ও পাওয়ার টিলার। ফলে শহরের রাস্তার মারাত্মক ক্ষতির পাশাপাশি জনজীবনেও নানা দুর্ভোগ নেমে এসেছে। অথচ অবৈধ এ যানবাহনগুলো নিয়ন্ত্রণে প্রশাসন কোন ব্যবস্থাই গ্রহণ করছে না। জেলা শহরের স্বল্প পরিসরের সড়কগুলো দিয়ে দিনের ব্যস্ততম সময় অবাধে এবং দ্রুত গতিতে চলাচল করছে উচ্চ শব্দের কৃষিক্ষেত্রে ব্যবহারের জন্য আমদানিকৃত এ যানবাহনগুলো। কাঁকড়া নামের ট্রাক্টরগুলো দিয়ে ঘাঘট নদী থেকে অবৈধভাবে মাটি ও বালু উত্তোলন করে তা উচ্চমূল্যে বিক্রি করা হচ্ছে। আর পাওয়ার টিলারগুলো ব্যবহৃত হচ্ছে ইট, মাটি ও মালামাল সরবরাহ করার কাজে। এ যানবাহনগুলো চলাচল বৃদ্ধি পাওয়ায় সড়ক দুর্ঘটনা যেমন ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে তেমনি যানজটের কারণে শহরের রাস্তাগুলো দিয়ে যানবাহন চলাচলও বিঘিœত হচ্ছে। এদের অবাধ চলাচলের ফলে গাইবান্ধা জেলা শহরের ঘাঘট নদীর শহর রক্ষা বাঁধটিও এখন চরম হুমকির মুখে।

কাঁকড়ার এ বেপরোয়া চলাচল সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে শহরের ডেভিড কোম্পানিপাড়া, সরকারপাড়া, পলাশপাড়া প্রাইমারি স্কুলের রাস্তা, ভি-এইড রোড, বালাসীঘাট সড়ক, স্টেডিয়াম সংলগ্ন সড়ক, ব্রীজ রোড, সাদুল্যাপুর সড়ক এবং গাইবান্ধা-কলেজ রোড নাকাইহাট সড়ক। এর ফলে শিশুদের স্কুলে পাঠিয়ে অভিভাবকরা ভুগছেন উদ্বেগ আতঙ্কে। এমনকি জেলা শহরের কেন্দ্রস্থলের স্টেশন রোড, ডিবি রোড, পিকে বিশ্বাস রোড, সার্কুলার রোডেও দিনের বেলাতেই অবাধে চলাচল করে এসমস্ত ট্রাক্টর এবং পাওয়ার টিলার।

বরিশালের আকাশে রাষ্ট্রীয় বিমানের ডানা মেলবে ৮ এপ্রিল

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ আগামী ৮ এপ্রিল থেকে আবারও বরিশালের আকাশে ডানা মেলতে যাচ্ছে রাষ্ট্রীয় সংস্থার বিমানের পাখা। বরিশালবাসীর দীর্ঘদিনের দাবির প্রেক্ষিতে অবশেষে আট বছর পর এ পথে সপ্তাহে দু’দিন বিমানের ফ্লাইট চলাচল করবে।

বরিশাল বিমানবন্দরের ব্যবস্থাপক মোঃ হানিফ গাজী জানান, ৮ এপ্রিল থেকে বিমানবন্দরে বিমান পরিচালনার জন্য সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। সচল রাখা হয়েছে বিমানবন্দরের নেভিগেশন বাতি। বর্তমানে বিমানবন্দরের ট্রাফিক সেক্টর ও নেটওয়ার্কিং সিস্টেমের উন্নয়ন কাজ চলছে। অন্যান্য সংস্কার কাজ শেষ পর্যায়ে। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স বরিশাল অফিসের ব্যবস্থাপক খলিলুর রহমান জানান, সপ্তাহের প্রতি রবি ও বুধবার ঢাকা থেকে বিকেল ৪টা এবং বরিশাল থেকে বিকেল ৪টা ৫৫ মিনিটে বিমান ছাড়বে। বিমানের একমুখী ভাড়া ইকনমি ক্লাস তিন হাজার টাকা, কুইন ক্লাস সাড়ে তিন হাজার টাকা ও সুপার ক্লাস চার হাজার টাকা। গত ১ এপ্রিল থেকে বিমান বাংলাদেশ বরিশাল অফিস থেকে টিকিট বুকিং শুরু হয়েছে। এছাড়া বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের অফিশিয়াল ওয়েবসাইট থেকেও যাত্রীরা টিকেট কিনতে পারবেন।

বরিশাল নাগরিক সমাজেব সদস্য সচিব ডাঃ মিজানুর রহমান বলেন, দীর্ঘদিনের দাবি পূরণ হওয়ায় বরিশালবাসী স্বভাবতই খুশি। তারা বিমান চালুকে স্বাগত জানালেও অতীতের অভিজ্ঞতায় বারবার বিমান যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়ার উদাহরণে তাদের শঙ্কা কাটছে না।