২২ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ইয়েমেনে আটকেপড়া এডেন থেকে জিবুতি হয়ে ফিরিয়ে আনা হবে


স্টাফ রিপোর্টার ॥ ইয়েমেনে আটকেপড়া বাংলাদেশীদের ফিরিয়ে আনতে তালিকা তৈরির কাজ শুরু হয়েছে। আটকেপড়াদের এডেন বন্দর থেকে জিবুতিতে আনা হবে। সেখান থেকে জাহাজে করে তাদের দেশে ফিরিয়ে আনা হবে। এছাড়া সেখান থেকে আটকেপড়া বাংলাদেশীদের ফিরিয়ে আনতে সহযোগিতার জন্য ভারতের কাছেও আনুষ্ঠানিকভাবে চিঠি দেয়া হচ্ছে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, ইয়েমেনের বাংলাদেশীদের ফিরিয়ে আনার লক্ষ্যে রবিবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে একটি আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠক হয়েছে। বৈঠকে ইয়েমেনে বাংলাদেশীদের ফিরিয়ে আনার বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়। ভারতের জাহাজযোগে বাংলাদেশীদের ফিরিয়ে আনার জন্য সেদেশের কাছে একটি আনুষ্ঠানিক চিঠি দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

বৈঠক সূত্র জানায়, ইয়েমেন থেকে বাংলাদেশীদের দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য ইতোমধ্যেই কুয়েত দূতাবাসের দুই কর্মকর্তা ইয়েমেনে পৌঁছেছেন। তারা শনিবার থেকে বাংলাদেশীদের তালিকা তৈরির কাজ শুরু করেছেন। ইয়েমেনের এডেন বন্দর থেকে জাহাজে করে তাদের দেশে নিয়ে আসা হবে। সেখান থেকে বাংলাদেশী নাগরিককে ফিরিয়ে আনতে ভারতের সঙ্গে ইতিমধ্যেই যোগাযোগ করেছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশীদের ফিরিয়ে আনতে ভারত রাজিও হয়েছে। তবে এ বিষয়ে এখন ভারতকে একটি আনুষ্ঠানিক চিঠি দেয়া হচ্ছে।

ইয়েমেনে দেড় থেকে তিন হাজার বাংলাদেশী রয়েছেন। আটকেপড়াদের জন্য কুয়েতে একটি হেল্প লাইন চালু করেছে সরকার। ইয়েমেনে আটকেপড়া বাংলাদেশীদের ফিরিয়ে আনার লক্ষ্যে ভারত, ওমান, জিবুতি, সৌদি আরব ও আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থার (আইওএম) সঙ্গেও আলোচনা চলছে।

ভারত সরকার জাহাজে করে ইয়েমেন থেকে তাদের নাগরিকদের ফিরিয়ে আনতে শুরু করেছে। বাংলাদেশের নাগরিকদের ইয়েমেন থেকে ফিরিয়ে আনতে ভারত নীতিগতভাবে রাজিও হয়েছে। ভারত সরকার ইতোমধ্যে জানিয়েছে বন্ধুরাষ্ট্র বাংলাদেশের সহযোগিতায় তারা সম্ভব সব কিছুই করবে। তবে তারা বলেছে, নিজেদের সব নাগরিককে ফিরিয়ে আনার পর এবং আটকেপড়া বাংলাদেশীরা শনাক্ত হয়ে গেলে ভারত সহযোগিতা করবে।

এদিকে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম শনিবার রাতে ইয়েমেন গেছেন। সেখানে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রী ইউসুফ বিন আলাউই বিন আবদুল্লাহর সঙ্গে বৈঠক করার কথা রয়েছে। বৈঠকে ইয়েমেনে আটকেপড়া বাংলাদেশীদের ফিরিয়ে আনার বিষয়েও ওমানের কাছে সহায়তা চাওয়া হবে।

সূত্র জানায়, বাংলাদেশীদের সানা ও এডেন থেকে জাহাজে করে প্রথমে জিবুতিতে আনা হবে। তারা পরে জিবুতি থেকে মুম্বাই হয়ে বাংলাদেশে আসবেন।

ইয়েমেনে আটকেপড়া বাংলাদেশীদের সঙ্গে যোগাযোগের জন্য কুয়েতে একটি হেল্প লাইন চালু হয়েছে। এই হেল্প লাইনে আটকেপড়া নাগরিক ও তাদের স্বজনদের যোগাযোগ রাখতে বলা হয়েছে। এই হেল্প লাইনের নাম্বার-০০৯৬৫-৫০৫৭০৭৫৪, ০০৯৬৫-৯৪৯৩৪৩৬৩, ০০৯৬৭-৭৩৩৮৫৬৯৯৮।

তিন বাংলাদেশী উদ্ধার ॥ ইয়েমেনে আটকেপড়া তিন বাংলাদেশীকে উদ্ধার করা হয়েছে। দেশটির রাজধানী সানা’র আল হুদায়রা শহর থেকে ভারতীয় জাহাজের সহযোগিতায় তাদের উদ্ধার করা হয়। রবিবার পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে এ তথ্য জানান। তাৎক্ষণিকভাবে উদ্ধার হওয়া ওই তিন বাংলাদেশীর পরিচয় জানা যায়নি। তবে খুব দ্রুত তাদের দেশে ফিরিয়ে আনা হবে বলে ওমানে অবস্থানরত পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে বলেন। ওই তিন বাংলাদেশী বর্তমানে আফ্রিকার দেশ জিবুতিতে নিরাপদে রয়েছেন বলেও জানান তিনি।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: