১৮ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

মঙ্গলে নাইট্রোজেন!


মঙ্গলপৃষ্ঠের পাথর খুঁড়ে নাইট্রেটের চিহ্ন পেয়েছে কিউরিওসিটি। নাইট্রেট হচ্ছে নাইট্রোজেন সমৃদ্ধ যৌগিক পদার্থ, যা জীবসত্তার ব্যবহারোপযোগী।

সব ধরনের প্রাণীর জীবন ধারণের জন্যই নাইট্রোজেন একটি অপরিহার্য উপাদান। কারণ এটি ডিএনএ ও আরএনএর একটি গুরুত্বপূর্ণ গাঠনিক উপাদান। তবে নাসা জানিয়েছে, মঙ্গলে সুনির্দিষ্ট এমন কোন নাইট্রোজেন অণুর সন্ধান মেলেনি, যা প্রাণীর মাধ্যমে তৈরি। মঙ্গলপৃষ্ঠ প্রচলিত প্রাণের টিকে থাকার অনুপযোগী।

গবেষকরা বলছেন, মঙ্গলে কিউরিওসিটির খুঁজে পাওয়া নাইট্রেট উপাদানগুলো প্রাচীন এবং সম্ভবত কোন উল্কা, বজ্রপাত বা অন্য কোন অজৈব প্রক্রিয়ার প্রভাবে তৈরি হয়ে থাকতে পারে।

পৃথিবী ও মঙ্গল গ্রহে নাইট্রোজেন পাওয়া যায় নাইট্রোজেন ডাই-অক্সাইড গ্যাসরূপে। নাসা জানায়, পৃথিবীতে নির্দিষ্ট কিছু জীবসত্তা বায়ুমণ্ডলে নাইট্রোজেনকে প্রয়োজনীয় রূপান্তরের মাধ্যমে জৈব রাসায়নিক প্রক্রিয়ায় কাজে লাগাতে পারে। তবে বজ্রপাতের আঘাতের মতো শক্তিশালী কোন ঘটনায় তুলনামূলক অল্প পরিমাণের নাইট্রোজেন রূপান্তর করা সম্ভব।

কিউরিওসিটি বর্তমানে মঙ্গলের মাউন্ট শার্প নামের পর্বতের পাদদেশে অবস্থান করছে। এটি প্রায় ১৮ হাজার ফুট উঁচু। রোবটযানটি গত ডিসেম্বরে মঙ্গলপৃষ্ঠে মিথেন গ্যাসের নিয়মিত নির্গমনের প্রমাণ পায়। তবে ওই মিথেনের উৎস এখনও অজানা।

আরিফুর সবুজ

উইকিমিডিয়া কমন্সের বর্ষসেরা ছবি

মুক্ত বিশ্বকোষ উইকিপিডিয়ার সহ-প্রকল্প উন্মুক্ত ছবির ভা-ার উইকিমিডিয়া কমন্স। সম্প্রতি তারা বর্ষসেরা ছবির ফলাফল ঘোষণা করেছে। ‘পিকচার অব দ্য ২০১৪’ প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থানে আছে ইকুয়েডরের রাসাভিয়ার তোলা দুটি প্রজাপতি এবং তিনটি কচ্ছপের ছবি। দ্বিতীয় স্থানে আছে ক্রিস্টোফার মিসেলের তোলা এ্যান্টার্কটিকার পেঙ্গুইনের উড়ন্ত ছবি। আর সমালোচকদের চোখে অন্যতম সেরা ছবি হিসেবে বিবেচিত হয়েছে যুক্তরাজ্যের ফ্রাঙ্কলিনের তোলা একজোড়া মান্দারিন হাঁসের ছবি।

সব মিলিয়ে বিভিন্ন বিভাগের ১২টি ছবি বিচারকদের রায়ে নির্বাচিত হয়েছে, এগুলো দিয়ে উইকিমিডিয়া ২০১৬ সালের বর্ষপঞ্জি করা হবে।

সূত্র : উইকিমিডিয়া কমন্স