১৮ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

আজ বিএনপির বিক্ষোভ, কাল হরতাল


স্টাফ রিপোর্টার ॥ আজ বুধবার সারাদেশে বিক্ষোভ মিছিল ও কাল বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা থেকে শুক্রবার সকাল ৬টা পর্যন্ত হরতাল পালনের ঘোষণা দিয়েছে বিএনপি জোট। তবে সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের জন্য ঢাকা ও চট্টগ্রাম মহানগরকে হরতালের আওতামুক্ত রাখা হয়েছে। সালাউদ্দিন আহমেদসহ ২০ দলীয় জোটের গুমকৃত নেতাকর্মীদের ফেরত দান, জোটের কারান্তরীণ সব পর্যায়ের নেতাকর্মীদের মুক্তি এবং গণগ্রেফতারসহ মামলা-হামলা বন্ধ করে দেশে স্বাভাবিক অবস্থা ফিরিয়ে আনা এবং নির্দলীয় সরকারের অধীনে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দাবিতে এ কর্মসূচী পালন করা হবে বলে মঙ্গলবার বিকেলে বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব বরকতউল্লাহ বুলুর নামে পাঠানো বিবৃতিতে বলা হয়। এছাড়া পরবর্তী ঘোষণা না দেয়া পর্যন্ত চলমান অবরোধ কর্মসূচী অব্যাহত থাকবে বলেও বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, ২০ দলীয় জোট এবং দেশবাসী আশা করে সরকার আসন্ন তিন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনকে অবাধ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য করতে সচেষ্ট হবে এবং নির্বাচন কমিশন নিরপেক্ষতার পরিচয় দিয়ে দেশের গণতান্ত্রিক ধারা ফিরিয়ে আনতে যথাযথ ভূমিকা পালন করবে। এর ব্যতয় ঘটলে জাতি তার অধিকার আদায়ে পথ খুঁজে নিতে বাধ্য হবে। রাজধানীতে দিনের বেলায় প্রকাশ্যে ব্লগার ওয়াশিকুর রহমান বাবুকে কুপিয়ে হত্যা করার ঘটনায় ২০ দলীয় জোট গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করছে এবং এ নারকীয় ঘটনায় প্রকৃত দোষীদের চিহ্নিত করে তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছে।

সিটি নির্বাচন সুষ্ঠু করতে এখনও নির্বাচন কমিশন পদক্ষেপ নেয়নি-এমাজউদ্দিন ॥ ৩ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে করতে এখনও নির্বাচন কমিশন পদক্ষেপ নেয়নি বলে অভিযোগ করেছেন শত নাগরিক কমিটির আহ্বায়ক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি প্রফেসর এমাজউদ্দিন আহমেদ। তিনি বলেন, নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রাখতে ব্যর্থ হলে নির্বাচন কমিশনকে মূল্য দিতে হবে। মঙ্গলবার বিকেলে জাতীয় প্রেক্লাবে বাংলাদেশ বৌদ্ধ ফ্রন্ট আয়োজিত ‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, গণতন্ত্রের সঙ্কট ও উত্তরণের পথ’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। এমাজউদ্দিন আহমেদ বলেন, আমি নির্বাচন কমিশনারকে বলেছিলাম জনগণ যাতে তাদের পছন্দ মতো প্রার্থীকে ভোট দিতে পারে সেজন্য আল্লাহর ওয়াস্তে কয়েকটি কাজ করবেন। কিন্তু দুর্ভাগ্যের বিষয় এখন পর্যন্ত তাদের কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করতে দেখিনি। মিছিল, মিটিং ও সমাবেশ ছাড়া প্রার্থী কখনও স্বাধীনভাবে প্রচারণা চালাতে পারে না। কিন্তু সবার জন্য এ ব্যবস্থা করছে না নির্বাচন কমিশন।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: