২১ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

এইচএসসি পরীক্ষা শুরু আজ ॥ পরীক্ষার্থী ১০ লাখ ৭৩ হাজার ৮৮৪


স্টাফ রিপোর্টার ॥ ২০১৫ সালের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হচ্ছে আজ। বিএনপি-জামায়াতের চলমান অবরোধের মধ্যে এবারের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় বসছে ১০ লাখ ৭৩ হাজার ৮৮৪ শিক্ষার্থী। এদিকে, পরীক্ষার্থীদের প্রতি শুভেচ্ছা জানিয়ে নির্ভয়ে পরীক্ষা দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। মঙ্গলবার পাঠানো এক বিবৃতিতে মন্ত্রী এ আহ্বান জানান। এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা চলাকালে নাশকতায় কোন পরীক্ষার্থীর ক্ষতি হলে তার দায় বিএনপি জোটকে নিতে হবে বলেও বিবৃতিতে হুঁশিয়ার করেছেন শিক্ষামন্ত্রী। আজ বুধবার বাংলা প্রথমপত্র (আবশ্যিক) পরীক্ষার মাধ্যমে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হচ্ছে।

উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা শুরু আগের দিন মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আমি হরতাল-অবরোধ ও সন্ত্রাসী কার্যক্রম পরিচালনাকারী জোটের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি পরীক্ষার্থীদের শান্তিপূর্ণভাবে পরীক্ষা দিতে দিন। দয়া করে কোন হটকারী ঘটনা ঘটাবেন না। আমি স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দিতে চাইÑ দেশের যে কোন স্থানে আমাদের একজন পরীক্ষার্থীরও যদি কোন ক্ষতি হয়, তার দায়-দায়িত্ব আপনাদেরকেই বহন করতে হবে। মানুষ আপনাদের ক্ষমা করবে না।

গত ৫ জানুয়ারি থেকে সারাদেশে টানা অবরোধ চালিয়ে আসা বিএনপি জোট ফেব্রুয়ারি ও মার্চের বেশিরভাগ সময় ছুটি ছাড়া প্রতিদিনই হরতাল করে এসেছে। বিএনপি জোটের অবরোধ-হরতালে চলতি এসএসসি ও সমমানের সবগুলো অর্থাৎ, ১৬ দিনের ৩৬৮টি পরীক্ষা পেছাতে বাধ্য হয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়। পরীক্ষাগুলো নেয়া হয় ছুটির দিনে, শুক্র ও শনিবার। তবে এ ধরনের রাজনৈতিক কর্মসূচীর কারণে যে এইচএসসি পরীক্ষা পেছানো হবে না তা আগেই জানিয়ে রেখেছেন শিক্ষামন্ত্রী।

বিবৃতিতে নাহিদ বলেন, সঙ্কটের মধ্যে এসএসসি পরীক্ষা শেষ হতে না হতেই এইচএসসি পরীক্ষা শুরু হচ্ছে। জাতির দুর্ভাগ্য যে, একটি রাজনৈতিক জোটের বিবেকবর্জিত অব্যাহত হরতাল-অবরোধের কারণে এসএসসির রুটিন অনুযায়ী একটি পরীক্ষাও নেয়া সম্ভব হয়নি। পরীক্ষার্থী, অভিভাবক, শিক্ষকসহ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষের দাবি, মতামত ও পরামর্শের প্রতি সম্মান দেখিয়ে আমরা যে কোন পরিস্থিতিতে রুটিনমাফিক পরীক্ষা নেয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি। এর কোন ব্যত্যয় হবে না।

পরীক্ষার্থীদের যাতায়াত নির্বিঘœ করতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাবাহিনীর ‘সর্বাত্মক’ নজরদারি থাকবে বলেও আশ্বস্ত করেছেন শিক্ষামন্ত্রী। তিনি বলেন, ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গিসম্পন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মী, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের সদস্য, সাধারণ জনগণ তোমাদের পাশে আছে। তোমরা নিশ্চিন্ত মনে পরীক্ষা দেবে। প্রশ্ন ফাঁসের গুজবে শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের বিভ্রান্ত না হওয়ার আহ্বান জানিয়ে পরীক্ষার্থীদের মন দিয়ে লেখাপড়া করার পরামর্শ দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী।

অবরোধের মধ্যেই এবার এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় বসছে ১০ লাখ ৭৩ হাজার ৮৮৪ শিক্ষার্থী। আজ ১ এপ্রিল থেকে ১১ জুন পর্যন্ত এইচএসসি ও সমমানের তত্ত্বীয় বিষয়ের পরীক্ষা হবে। আর ব্যবহারিক পরীক্ষা হবে ১৩ জুন থেকে ২২ জুন। ২০১৪ সালে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় ১১ লাখ ৪১ হাজার ৩৭৪ শিক্ষার্থী অংশ নিয়েছিল। এ হিসেবে এবার পরীক্ষার্থী কমেছে ৬৭ হাজার ৪৯০ জন। মোট পরীক্ষার্থীর মধ্যে এবার এইচএসসিতে আটটি সাধারণ বোর্ডের অধীনে আট লাখ ৮৬ হাজার ৯৩৩, মাদ্রাসা বোর্ডের অধীনে আলিমে ৮৪ হাজার ৩৬০, কারিগরি বোর্ডের অধীনে এইচএসসি বিএম/ভোকেশনালে ৯৮ হাজার ২৪৭ এবং ডিআইবিএসে চার হাজার ৩৪৪ জন পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: