১৯ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

নরসিংদীতে ইউপি সদস্যকে গুলি করে হত্যা ॥ সড়ক অবরোধ, গাড়ি ভাংচুর


নিজস্ব সংবাদদাতা, নরসিংদী, ৩০ মার্চ ॥ শিবপুর উপজেলার পুটিয়া ইউপি মেম্বার আরিফ পাঠানকে (৪৫) গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের শিবপুরের বড়ইতলা এলাকায় সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টায় এ ঘটনা ঘটে। এ হত্যাকা-ের প্রতিবাদে বিক্ষুব্ধ জনতা ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধ করে এবং কমপক্ষে ১০ গাড়ি ভাংচুর করে। আরিফ পাঠান বিএনপির সাবেক মহাসচিব আবদুল মান্নান ভূঁইয়া পরিষদেরও সদস্য ছিলেন।

শিবপুর মডেল থানার ওসি খন্দকার ইমাম হোসেন জানান, ইউপি মেম্বার আরিফ পাঠান বড়ইতলা এলাকায় মোটরসাইকেল থামিয়ে দাঁড়ান। এ সময় পেছন থেকে দু’টি মোটরসাইকেল নিয়ে এসে দুর্বৃত্তরা তাঁকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়ে দ্রুত পালিয়ে যায়। মাথায় গুলিবিদ্ধ হয়ে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। এ সময় তাঁর আত্মচিৎকারে আশপাশের লোকজন দৌড়ে এসে তাঁকে নরসিংদী জেলা হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

নিহতের ছোট ভাই রোমান পাঠান (২৫) জানান, তার ভাই আরিফ পাঠান পুটিয়া ইউনিয়ন পরিষদের ৭নং ওয়ার্ডে তিনবার মেম্বার পদে নির্বাচিত হয়েছেন। তার প্রতিপক্ষ মিলন মিয়া তিনবার প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে পরাজিত হয়। এরপর থেকেই আমার ভাইকে হত্যার চেষ্টা চালায় সে। পরাজয়ের কারণেই মিলন মিয়ার লোকজন এ হত্যাকা- ঘটিয়েছে বলে তিনি ধারণা করছেন।

এ হত্যাকা-ের প্রতিবাদে স্থানীয় লোকজন ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধ করে এবং কমপক্ষে ১০ গাড়ি ভাংচুর করে। খবর পেয়ে নরসিংদী পুলিশ সুপার আমেনা বেগম এবং অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। তারা ঘটনায় জড়িতদের আইনের আওতায় আনার আশ্বাস দিয়ে অবরোধকারীদের মহাসড়ক থেকে চলে যাওয়ার অনুরোধ জানান। পরে বিক্ষুব্ধ জনতা বেলা সাড়ে তিনটার দিকে অবরোধ প্রত্যাহার করেন।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: