২৩ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

উজবেকরাও ৪ গোলে হারাল বাংলাদেশকে


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ সেই একই পুরনো ভুল। আবারও সেই সেটপিস থেকে ক্রমাগত গোল হজম। ডিফেন্ডাররা এবং গোলরক্ষক আবারও প্রথম ম্যাচের মতোই ব্যর্থ। আবারও সেই ভুলের পুনরাবৃত্তি এবং করুণ হার। গ্রুপ রানার্সআপ হওয়ার পথে উজবেকদের কাছ থেকে পয়েন্ট ছিনিয়ে নিয়ে কক্ষপথে থাকার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছিল বাংলাদেশ দল। কিন্তু পয়েন্ট ছিনিয়ে নেয়া তো দূরে থাক, ‘একহালি’ গোল হজম করে (৪-০, প্রথমার্ধের হয় সব গোল) ‘এএফসি অনুর্ধ-২৩ চ্যাি

ম্পয়নশিপ বাছাইপর্ব’ থেকে এক ম্যাচ বাকি থাকতেই বিদায় নিল স্বাগতিক বাংলাদেশ যুবদল। প্রথম ম্যাচেও বাংলাদেশ হেরেছিল ওই একই ব্যবধানে (০-৪), সিরিয়া যুবদলের কাছে। টানা দুই ম্যাচে হেরে বিদায়ঘণ্টা বেজে গেল বাংলাদেশের। তাদের অর্জন ‘শূন্য’ পয়েন্ট। আর টানা দুই ম্যাচ জিতে ‘হোয়াইট উলভ্স’ খ্যাত উজবেকিস্তান যুবদল পূর্ণ ৬ পয়েন্ট পেয়েছে। প্রথম ম্যাচে ২-০ গোলে তারা পরাভূত করেছিল ভারতকে। সিরিয়ার মতো তাদেরও পয়েন্ট সমান। তবে সিরিয়ার গোল তাদের চেয়ে ২টি বেশি (সিরিয়া ৮, উজবেকিস্তান ৬)। এখন ৩১ মার্চ বাংলাদেশ-উজবেকিস্তান দুই দল মাঠে নামবে ভিন্ন উদ্দেশ্য নিয়ে। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে বেলা ৩টায় গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য সিরিয়ার মুখোমুখি হবে উজবেকিস্তান। আর সন্ধ্যা ৬টায় মর্যাদা রক্ষার লড়াইয়ে প্রতিবেশী ভারতের বিপক্ষে মাঠে নামবে স্বাগতিক বাংলাদেশ।

ম্যাচের ৪ মিনিটে উজবেকিস্তানের বক্সের কাছে মাকসতালিভকে ফাউল করেন বাংলাদেশের ফরোয়ার্ড আতিকুর রহমান ফাহাদ। ফ্রি কিকে গোল করেন মিডফিল্ডার মাশারিপভ (১-০)। ১৩ মিনিটে মাসারিপভের ক্রসে হেডে বাংলাদেশের জালে বল পাঠান ডিফেন্ডার-অধিনায়ক সারদর রাখমানভ (২-০)। ২৯ মিনিটে রাখমানভ জোরালো হেডে আবারও গোল করে এগিয়ে নেন দলকে (৩-০)। ৪০ মিনিটে মিডফিল্ডার মাকসতালিভের গোলে ব্যবধান দাঁড়ায় ৪-০ তে। ৫৪ মিনিটে ফরোয়ার্ড শাগুলিয়ামভ লালকার্ড দেখে মাঠের বাইরে গেলে ১০ জনের দলে পরিণত হয় উজবেকিস্তান। তবুও ব্যবধান কমাতে পারেনি বাংলাদেশের যুবারা। বরং বাংলাদেশ অধিনায়ক রায়হান হাসানও লালকার্ড দেখে মাঠ ছাড়লে বাংলাদেশও পরিণত হয় দশজনের দলে। শেষ পর্যন্ত আর কোন গোল না হওয়াতে ওই ৪-০ গোলের হার নিয়েই মাঠ ছাড়ে ক্রুইফের শিষ্যরা।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: