২৩ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

তালতলীর বিতাড়িতদের জন্য বাড়িঘর নির্মাণ চলছে


নিজস্ব সংবাদদাতা, আমতলী (বরগুনা), ২৯ মার্চ ॥ অবশেষে জনকণ্ঠে খবর ছাপা হওয়ার পর টনক নড়েছে স্থানীয় প্রশাসনের। বরগুনার তালতলী উপজেলার পঁচাকোড়ালিয়া ইউনিয়নের চন্দনতলা গ্রামের ১৪ হিন্দু পরিবারকে বাস্তুভিটা থেকে বিতাড়িত করার খবর রবিবার জনকণ্ঠে ছাপা হওয়ার পর তাদের পুনর্বাসনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। রবিবার সকাল থেকে পুলিশের তত্ত্বাবধানে বিতাড়িতদের জন্য বাড়িঘর নির্মাণ শুরু হয়েছে। এলাকার সাধারণ মানুষও তাদের পাশে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, প্রশাসনের উদ্যোগে পুলিশ ও ইউনিয়ন পরিষদের তত্ত্বাবধানে হিন্দু পরিবারগুলোর লুণ্ঠিত সামগ্রী উদ্ধার করা হয়। অপরদিকে প্রশাসনের সহযোগিতা পেয়ে চন্দনতলা, উত্তর গাববাড়ীয়া, পশ্চিম চন্দনতলা, আমলইতলা ও গাববাড়িয়া গ্রামসহ আশপাশের শত শত হিন্দু-মুসলমান একাট্টা হয়েছে সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে। ওই গ্রামের হিন্দুদের পড়শী আবদুল জলিল জানান, আমরা সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছি। আর কোন সন্ত্রাসী যেন কাউকে এভাবে বিতাড়িত করতে না পারে, তার আমরা নজরদারি করব। পড়শী হিন্দুদের নিরাপত্তাসহ অপরাধীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হলে আমরা আন্তরিকতার সঙ্গে সহযোগিতা করব। ইউপি চেয়ারম্যান নজির হোসেন কালু পাটোয়ারী জানান, ওই পরিবারগুলোকে পুনর্বাসনের জন্য লুণ্ঠিত মালামাল উদ্ধার করে পরিষদের অর্থায়নে বাড়িঘর নির্মাণ শুরু করেছি। তালতলী থানার ওসি বাবুল আখতার জানান, বাড়িঘর নির্মাণ শেষ হলে ক্ষতিগ্রস্তদের এখানে ফিরিয়ে আনা এবং তাদের নিরাপত্তা দেয়া হবে। তিনি আরও জানান, ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে।