১৮ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৮ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

বনভোজনের চাঁদা না দেয়ায় ৩০ শিক্ষার্থীকে বেত্রাঘাত ॥ প্রধান শিক্ষককে গণপিটুন


স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ বাঘার চ-িপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে বনভোজনের চাঁদা না পেয়ে ৩০ শিক্ষার্থীকে বেত্রাঘাত করায় প্রধান শিক্ষককে গণপিটুনি দিয়েছে অভিভাবকরা। শনিবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ পুলিশ গিয়ে অভিযুক্ত শিক্ষককে আটক করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

স্থানীয়রা জানায়, চ-িপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের আয়োজনে আজ রবিবার বনভোজনের দিন নির্ধারণ করা হয়। প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলামসহ সব শিক্ষক শিক্ষার্থী প্রতি ১০০ টাকা চাঁদা নির্ধারণ করেন। প্রত্যেক শিক্ষার্থীর কাছ থেকে এ চাঁদা তোলার জন্য সহকারী শিক্ষক মোহাম্মদ আলীকে দায়িত্ব দেন প্রধান শিক্ষক। তবে বিদ্যালয় চত্বরে বনভোজন করতে দ্বিমত পোষণ করে কয়েক শিক্ষার্থী চাঁদা দেবে না বলে জানালে শিক্ষক মোহাম্মদ আলী ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন। এ ঘটনায় শনিবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে শিক্ষক মোহাম্মদ আলী শিক্ষার্থী পিয়াস, রাকিব, রুমা, পারভেজ, সেলিম, মাহফুজা, শামীম, রাজু, রিয়া, বৃষ্টি, আসিব, স্বপন, শাবনুর, চৈতী ও রাহিদসহ ৩০ শিক্ষার্থীকে বেত্রাঘাত করে।

এ খবর ছড়িয়ে পড়লে অভিভাবকসহ স্থানীয় লোকজন স্কুল ঘেরাও করে ওই শিক্ষককে ধাওয়া করে। ওই শিক্ষক দৌড়ে অফিস কক্ষে ঢুকে দরজা বন্ধ করে রক্ষা পান। পরে বিক্ষিপ্ত জনতা প্রধান শিক্ষককে বেদম মারপিট করে আহত করে। খবর পেয়ে বাঘা থানা পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: