১৮ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

তিন পার্বত্য জেলায় অন্তর্বর্তীকালীন জেলা পরিষদ গঠন


জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ তিন জেলায় তিনজনকে চেয়ারম্যান করে গঠিত হলো অন্তর্বর্তীকালীন খাগড়াছড়ি, রাঙ্গামাটি ও বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদ। বুধবার বিকেলে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সহকারী সচিব ফারহানা হায়াত স্বাক্ষরিত এক ফ্যাক্স বার্তায় অন্তর্বর্তীকালীন খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ গঠনের কথা জানানো হয়।

পার্বত্য জেলা পরিষদ আইন ১৯৮৯-১৯৯৭ সালে সংশোধিত ১৬ (ক) (২), (৪) উপধারা এবং ২০১৪ সালে সংশোধিত ৪ (২) উপধারায় প্রদত্ত ক্ষমতা বলে সরকার পার্বত্য জেলায় অন্তর্বর্তীকালীন পরিষদ পুনর্গঠন করেন। এর আগে ২১ মার্চ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ পরিষদ গঠনের অনুমোদন প্রদান করেন।

জানা গেছে, খাগড়াছড়ি জেলায় কংজরী চৌধুরীকে চেয়ারম্যান করে গঠন করা হয়েছে অন্তর্বর্তীকালীন খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ। এ পরিষদের সদস্যরা হলেন বাঙালী কোটায় খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ জাহেদুল আলম, মানিকছড়ি উপজেলা পরিষদ সাবেক চেয়ারম্যান এম আবদুল জব্বার ও খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক নির্মল চৌধুরী ও মহিলা সদস্য হিসেবে মাটিরাঙ্গা উপজেলা মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান নিগার সুলতানা।

ত্রিপুরা কোটায়, খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা রণ বিক্রম ত্রিপুরা, খগেশ্বর ত্রিপুরা, খাগড়াছড়ি সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি খোকনেশ্বর ত্রিপুরা।

মারমা কোটায় খাগড়াছড়ি সাবেক পৌর চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নেতা মংক্যচিং চৌধুরী, জেলা আ’লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক মংশেপ্রু চৌধুরী অপু এবং লক্ষ্মীছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান রে¤্রাচাই চৌধুরী। চাকমা কোটায়, খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাডভোকেট আশুতোষ চাকমা, খাগড়াছড়ি জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক জুয়েল চাকমা, পানছড়ির শতীষ চাকমা ও উপজাতীয় মহিলা কোটায় মহিলা সদস্য হয়েছেন সাবেক দীঘিনালা উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শতরূপা চাকমা।

রাঙ্গামাটি ॥ সরকার বিষকেতু চাকমাকে চেয়ারম্যান করে ১৫ সদস্য বিশিষ্ট অন্তর্বর্তীকালীন রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদ পুনর্গঠন করেছে।

রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদের অন্য সদস্যরা হলেন মহিলা সদস্য পদে অপহৃত আওয়ামী লীগ নেতা ও বীর মুক্তিযোদ্ধা অনীল তংচঙ্গার স্ত্রী সান্ত¡না চাকমা, পৌর কাউন্সিলার জেবুননেছা রহিম, সদর উপজেলা থেকে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাজী মুছা মাতব্বর, লংগদু থেকে মোঃ জানে আলম, নানিয়াচর থেকে ত্রিদীব কান্তি দাশ, জুরাই ছড়ি থেকে জ্ঞানেন্দু বিকাশ চাকমা, বরকল সুবীর কুমার চাকমা সদর উপজেলা থেকে অমিত কুমার চাকমা (রাজু), সাধন মনি চাকমা, স্মৃতি বিকাশ ত্রিপুরা বিলাইছড়ির রেমলিয়ানা পাংকুয়া, রাজস্থলী থেকে চান মুনি তংচঙ্গা, কাউখালী থেকে অংসুই প্রু চৌধুরী ও কাপ্তাই থেকে থোয়াই চিংমারমা।

বান্দরবান ॥ সংসদে পাস হওয়া বিলে রাষ্ট্রপতির স্বাক্ষরের পর বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের একজন চেয়ারম্যান ও ১৪ সদস্যর নাম বুধবার গেজেট আকারে প্রকাশ করা হয়।

জানা গেছে, বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হিসেবে ক্য শৈ হ্লা, পরিষদের সদস্য হিসেবে কাজী মুজিবর রহমান, লক্ষ্মী পদ দাশ, জহিরুল ইসলাম, ফাতেমা পারুল, থোয়াই চা হ্লা মার্মা, থোয়াই হ্লা মং মার্মা, তিং তিং ম্যা, চিং ইয়ং স্রো, ফিলিপ ত্রিপুরা, কাঞ্চন জয় তংচঙ্গ্যা, জুয়েল বম, ক্যউ চিং চাক, ম্রাচা খ্যায়াং ও ক্য সা প্রু মার্মাকে নিয়োগ করা হয়েছে।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: