১৯ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৫ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

বাগেরহাটে কমিউনিটি ক্লিনিকে সৌরবিদ্যুত প্যানেল বিতরণ


স্টাফ রিপোর্টার, বাগেরহাট ॥ গ্রামীণ সাস্থ্যসেবার মান আরও বৃদ্ধির লক্ষ্যে বিদ্যুতবিহীন কমিউনিটি ক্লিনিকে সৌরবিদ্যুত সিস্টেম (প্যানেল) বিতরণ করা হয়েছে। মঙ্গলবার জিআইজেড ও বাংলাদেশ বন্ধু ফউন্ডেশনের আর্থিক সহায়তায় পিএইচডির ব্যবস্থাপনায় এ সৌরবিদ্যুত প্যানেল বিতরণ করেন, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মীর শওকত আলী বাদশা এমপি। এ সময় আরও বক্তব্য দেন সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ বাকির হোসেন, মাহফুজ জামান, মোঃ ফেরদৌস, ডাঃ রুবায়েত ফাতেমা, শেখ সাজ্জাদ হোসেন, আজহারুল হক, বাবুল সরদার প্রমুখ। এ ক্লিনিকগুলোতে এতদিন বিদ্যুত না থাকায় গর্ভবতী মহিলা, শিশু ও প্রসূতি মায়েদের সেবা কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছিল।

নদী বাঁচাতে দাকোপে মানববন্ধন সমাবেশ

স্টাফ রিপোর্টার, খুলনা অফিস ॥ খুলনার দাকোপ উপজেলার বাজুয়ার চড়া এবং চুনকুড়ী নদীর ইজারা বন্ধ ও দখলদারমুক্তসহ পুনরায় খননের দাবিতে মঙ্গলবার বেলা ১১টায় বাজুয়া চড়ার বাঁধে মানববন্ধন ও সমাবেশ হয়েছে। নারীবিকাশ কেন্দ্র এই কর্মসূচীর আয়োজন করে। দানকুমারীর সভাপতিত্বে মানববন্ধন সমাবেশে বক্তব্য রাখেন স্বপন কুমার রায়, তুষার দাশ, দীপক রায়, অনিমেশ ম-ল, মৃণাল ম-ল, বিমলেন্দু বিশ্বাস, নারী নেত্রী অনিতা সরদার, অনিমা ম-ল প্রমুখ।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, প্রায় ২০ কিলোমিটার দীর্ঘ এই নদী দুটি দাকোপ উপজেলার ৩৩ পোল্ডারের ৫টি ইউনিয়নের প্রাণ। এলাকার হাজার হাজার বিঘা জমিতে আমন ও রবিশস্য ফলাতে এই নদীর ভূমিকা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। এলাকার মানুষের জীবন জীবিকা ও সংস্কৃতির সঙ্গে মিশে আছে এই নদী। নদী দুটি ইজারা দেয়ায় সাধারণ মানুষ মাছ ধরতে পারছে না। যারা ইজারা নিচ্ছে তারা নদীর বুকে কারেন্টজাল, টানাজাল এবং আড়াআড়ি পাটা দেয়ায় নদী দ্রুত নাব্যতা হারিয়ে ফেলেছে। নদীর দুইপাড় অবৈধ দখলে চলে যাওয়ায় নদীর অস্তিত্ব আজ হুমকির সম্মুখীন। বক্তারা নদী দু’টিকে বাঁচাতে ইজারা বন্ধ, দখলদার উচ্ছেদ ও নদী পুনঃখননের দাবি জানান।