১৭ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৮ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

মাদক নিয়ন্ত্রণ ডিজির দাবি


স্টাফ রিপোর্টার ॥ দেশে ফেনসিডিলের সরবরাহ ৩২ ভাগ কমেছে বলে দাবি করেছেন মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের মহাপরিচালক বজলুর রহমান। তিনি বলেন, ২০০৯ সালে ভারত-বাংলাদেশ মহাপরিচালক পর্যায়ের প্রথমবারের বৈঠকের পর এই অগ্রগতি হয়।

সোমবার সন্ধ্যায় রাজধানীর মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের মহাপরিচালকের কার্যালয়ে মিট দ্য প্রেস অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। চতুর্থ মহাপরিচালক পর্যায়ের দুই দিনেই বৈঠক শেষে যৌথ ঘোষণা উপলক্ষে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

যৌথ ঘোষণাপত্রে বাংলাদেশের পক্ষে ডিজি বজলুর রহমান ও ভারতের পক্ষে নারকোটিকস কন্ট্রোল ব্যুরোর মহাপরিচালক বি.বি. মিশ্র স্বাক্ষর করেন।

বজলুর রহমান বলেন, সীমান্তে আফিম, গাঁজা চাষ বন্ধে দুই পক্ষ একমত হয়েছি। তালিকা অনুযায়ী সীমান্তে ফেনসিডিলের অবৈধ কারখানা বন্ধে মালিকের নাম সহকারে তালিকা সরবরাহ করা হয়েছে। ভারত ইতোমধ্যে কয়েকটি কারখানার অস্তিত্ব পেয়ে তা বিনষ্ট করেছে। তার দাবি দেশে ফেনসিডিলের প্রকোপ কমেছে।

বি.বি. মিশ্র বলেন, দেরিতে হলেও আমরা আবার বসতে পেরেছি। তবে, আনুষ্ঠানিক বৈঠক করতে না পারলেও অনেক সময়েই আমরা আনঅফিসিয়ালি যোগাযোগ রেখেছি। আমরা মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছি।

দুই দিনব্যাপী ভারত-বাংলাদেশ ডিজি পর্যায়ের এই বৈঠক শুরু হয় রবিবার। ১৫ সদস্যের বাংলাদেশ দলে বজলুর রহমান আর ১০ সদস্যের ভারতীয় প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন বি.বি. মিশ্র।

সীমান্তবর্তী অঞ্চলে মাদক চোরাচালান, চোরাচালানের রুট শনাক্ত করা ও পপি চাষ বন্ধে গোয়েন্দা নজরদারি এবং যৌথ অভিযান পরিচালনা করা হবে বলে ঘোষণাপত্রে উল্লেখ করা হয়েছে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: