২০ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৩ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

নাশকতা দমনে জরুরী আইনী ব্যবস্থার সুপারিশ


সংসদ রিপোর্টার ॥ বিএনপি-জামায়াত সৃষ্ট চলমান নাশকতা ও সন্ত্রাস শক্ত হাতে দমনে জরুরী আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করেছে সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। একইসঙ্গে কমিটির বৈঠকে দেশে বিশৃঙ্খলা ও নাশকতার সঙ্গে জড়িতদের আইনের আওতায় এনে দ্রুত বিচার ও শাস্তি নিশ্চিত করারও সুপারিশ করা হয়েছে।

রবিবার বিকেলে জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির বৈঠকে এ সুপারিশ করা হয়। কমিটির সভাপতি টিপু মুনশি’র সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটি সদস্য স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল, মোঃ মোজাম্মেল হোসেন, শামসুল হক টুকু, আবুল কালাম আজাদ, আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, ফখরুল ইমাম ও কামরুন নাহার চৌধুরী এবং সংশ্লিস্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে অভিজিত রায়ের ওপর হামলার সময় পুলিশের ‘নিষ্ক্রিয়তার’ কারণ কী তা জানতে চেয়েছে সংসদীয় কমিটি। কমিটির আগামী বৈঠকে এ বিষয়ে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে পুলিশকে। বৈঠক শেষে কমিটির সভাপতি টিপু মুনশি সাংবাদিকদের বলেন, অভিজিত রায়ের হত্যার পর বিভিন্ন মহল থেকে পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। বলা হচ্ছে, পুলিশের উপস্থিতির মধ্যেই এ ঘটনা ঘটেছে। এজন্য আমরা বিষয়টি বিস্তারিত জানতে চেয়েছি। কমিটির আগামী বৈঠকে পুলিশকে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানাতে বলা হয়েছে।

বৈঠকে দেশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি সম্পর্কে জানতে চান কমিটির সদস্যরা। এ সময় মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর তৎপরতায় সহিংসতা ও নাশকতা নিয়ন্ত্রণে এসেছে। নাশকতার সঙ্গে জড়িতদের আটক করে আইনের হাতে সোপার্দ করা হয়েছে। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি এখন স্বাভাবিক হয়েছে। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি বর্তমানে নিয়ন্ত্রণে আছে বলেও দাবি করা হয়।

বৈঠকে আরও জানানো হয়, প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী পঞ্চাশ হাজার পুলিশ সদস্য নিয়োগের কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। এ লক্ষ্যে ট্রেইনি রিক্রুট কনস্টেবল পুরুষ পদে ৮ হাজার ৫০০ জন এবং নারী পদে এক হাজার ৫০০ জন কনস্টেবল নিয়োগ কার্যক্রম চলমান রয়েছে। এছাড়াও প্রায় ৬০০ জন পুলিশ সার্জেন্ট (পুরুষ/নারী) পদে নিয়োগের কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

বৈঠকে মহাসড়কে চলাচলরত গাড়িতে ভিআইপি হর্ন, ফ্ল্যাগ স্ট্যান্ড ও জাতীয় সংসদের মনোগ্রাম সংবলিত স্টিকার ব্যবহার নিয়ন্ত্রণ করার লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দিতে বলা হয়েছে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: