২৩ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

পঞ্চগড়ে মাদকাসক্ত ছেলে কুপিয়ে হত্যা করেছে বাবা-মাকে


স্টাফ রিপোর্টার, পঞ্চগড় ॥ পঞ্চগড়ে বাবা-মাকে নৃশংসভাবে জবাই ও কুপিয়ে হত্যা করেছে এক পাষ- ছেলে। মর্মান্তিক ও হৃদয়বিদারক ঘটনাটি ঘটেছে রবিবার দুপুরে শহরের পুরাতন ক্যাম্প মহল্লায়। বাবা ও মাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে জবাই ও কোপানোর সময় চিৎকারে গ্রামবাসী থামাতে গেলে তাদের ওপরও চড়াও হয়। ভয়ে কেউ কাছে ভিড়তে না পারলেও ঘটনাটি থানার পার্শ্বে হওয়ায় পুলিশ দ্রুতই ঘটনাস্থলে গিয়ে উন্মাদ ওই যুবককে আটকাতে গিয়ে দুই পুলিশ কর্মকর্তা ও এক পড়শী ধারালো অস্ত্রের আঘাতে গুরুতর আহত হন। পরে পুলিশ এলাকাবাসীর সহযোগিতায় ঘাতক যুবককে আটক করে। বাবা-মাকে নৃশংসভাবে হত্যার ঘটনাটি এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে। ঘাতক যুবক মাদকাসক্ত ছিল বলে এলাকাবাসী জানায়।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, রবিবার দুপুর আনুমানিক আড়াইটার দিকে মঞ্জুরুল হাসান শান্ত নামে মাদকাসক্ত ওই যুবক বাড়িতে প্রথমে তার মা রীনা পারভীনকে (৬০) ধারালো অস্ত্র দিয়ে জবাই করে হত্যা করে। এ সময় তার বাবা অবসরপ্রাপ্ত চিনিকল কর্মকর্তা মুক্তিযোদ্ধা মিজানুর রহমান (৬৫) আটকাতে যায়। তার বাবাকেও ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাথাড়ি কোপাতে থাকে। খবর পেয়ে পঞ্চগড় থানার এসআই আরিফ হোসেন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পড়শি ভাড়াটিয়া এসআই এনামুল হক ও পুলিশ কনস্টেবল মাহবুবুর রহমানের স্ত্রী নাসিমা বেগম উন্মাদ ওই যুবককে আটকাতে গেলে তাদেরও কুপিয়ে আহত করে। ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপাতে গিয়ে ঘাতক শান্ত নিজেও আহত হয়েছে। পরে পুলিশ তাকে আটক করে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। এলাকাবাসী শান্তর বাবা ও মাকে উদ্ধার করে দ্রুত পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ মনসুর আলম তাদের মৃত ঘোষণা করেন।