১৭ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

গাপটিল তা-বে সেমিতে নিউজিল্যান্ড


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ কী ব্যাটিং তা-বই না দেখালেন নিউজিল্যান্ড ব্যাটসম্যান মার্টিন গাপটিল। একাই করে ফেললেন ২৩৭ রান! তার এ দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ১৪৩ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়ে সেমিফাইনালেও উঠে গেল নিউজিল্যান্ড।

গাপটিল খুব বড় তারকা ছিলেন না। ক্রিস গেইল, এবি ডি ভিলিয়ার্সের মতো ভয়ঙ্কর ব্যাটসম্যান কখনই ছিলেন না। কিন্তু বিশ্বকাপে সবাইকে ছাপিয়ে গেলেন এ গাপটিলই। অতিদানবীয় এক ইনিংস খেললেন। ওয়েলিংটনে উৎসব হলো। নিউজিল্যান্ড সেমিফাইনালে উঠল। উৎসবের নায়ক হয়ে গেলেন গাপটিল। আগে ব্যাট করে ৫০ ওভারে ৬ উইকেটে ৩৯৩ রান করে নিউজিল্যান্ড। এ রানের মধ্যে গাপটিল একাই করেছেন ২৩৭ রান। ১৬৩ বলে ২৪ চার ও ১১ ছক্কায় এ দুর্দান্ত ইনিংসটি সাজান গাপটিল। থাকেন আবার অপরাজিতও। এমন ইনিংস গাপটিলকে অন্য উচ্চতাতেও নিয়ে গেছে। বিশ্বকাপে এখন সবচেয়ে বড় ইনিংসটি গাপটিলেরই। বিশ্বকাপে এর আগে শুধু একটি ডাবল শতকই হয়েছিল। সেটি করেছিলেন ক্রিস গেইল। এ বিশ্বকাপেই গ্রুপ পর্বে জিম্বাবুইয়ের বিপক্ষে ২১৫ রান করেছিলেন গেইল। সেই গেইলের দলের বিপক্ষেই গাপটিল ঝড় তুললেন। আর একজন ব্যাটসম্যানও অর্ধশতক করতে পারেননি। সেখানে গাপটিল একাই ডাবল শতক করলেন। নিউজিল্যান্ডের হয়ে প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে ডাবল শতক করেন গাপটিল। আর ওয়ানডেতে এ নিয়ে মোট ৭ শতক হলো গাপটিলের। ওয়ানডেতে রোহিত শর্মার ২৬৪ রানের পর ব্যক্তিগত দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রানও করেন গাপটিল।

এমন বিশাল রান যখন সামনে থাকে, তখন কী আর ম্যাচ জেতার স্বপ্ন বাস্তবায়ন হয়। ওয়েস্ট ইন্ডিজেরও হলো না। তবে গেইল ঝড় অবশ্য ঠিকই মিলল। ৩৩ বলে ৬১ রান করলেন গেইল। দলও খুব সুন্দর এগিয়েও যাচ্ছিল। কিন্তু হঠাৎ ছন্দপতন শুরু হয়ে যায়। ড্যানিয়েল ভেট্টরি বোল্টের বলে স্যামুয়েলসের (২৭) দুর্দান্ত ক্যাচটি যখন বাউন্ডারির একেবারে কাছ থেকে ধরেন। তখন ওয়েস্ট ইন্ডিজের রানের চাকা সচল। ৯.১ ওভারেই ৮০ রান হয়ে গেছে। ২ উইকেটও পড়েছে। বোল্টের বলে আপার কাট করেন স্যামুয়েলস। সবাই মনে করেছে ছক্কাই হবে। নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক ম্যাককুলামত হাত দিয়ে মুখই ঢেকে ফেলেন। ঠিক এমন মুহূর্তে ডিপ মিডউইকেট হয়ে থার্ডম্যানের কাছাকাছি বাউন্ডারি স্থানে দাঁড়িয়ে থাকা ভেট্টরি এক লাফ দেন, সঙ্গে হাতও বাড়ান। বল হাতে জমে যায়। অসাধারণ এক ক্যাচ ধরেন। সতীর্থরা দৌড়ে গিয়ে ভেট্টরিকে জড়িয়ে ধরেন। আর স্যামুয়েলস কিছুক্ষণ অবাক হয়ে পিচেই দাঁড়িয়ে থাকেন।

এ ক্যাচটি তখন ভেট্টরি না ধরলে রানের চাকা সচলই থাকত। স্যামুয়েলসও আরও এগিয়ে যেতেন। দলকেও এগিয়ে নিয়ে যেতেন। সেই যে ধাক্কা খেল ওয়েস্ট ইন্ডিজ, ১২০ রানে গেইলের আউটের পর ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের হার যেন সময়ের বিষয় হয়ে দাঁড়ায়। শেষপর্যন্ত ৩০.৩ ওভারে ২৫০ রান করা গেলেও ওয়েস্ট ইন্ডিজের ইনিংস গুটিয়ে গেল। বোল্টের (৪/৪৪) দুর্দান্ত বোলিংয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ হেরে বিদায় নিল। সপ্তমবারের মতো বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে উঠল স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড। মঙ্গলবার অকল্যান্ডে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সেমিফাইনাল ম্যাচটি খেলবে নিউজিল্যান্ড।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: