২৩ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ব্যক্তিগত সার্ভার জমা দিতে অনুরোধ হিলারিকে


বেনগাজির সন্ত্রাসী হামলার বিষয়ে তদন্তরত কংগ্রেস-কমিটি হিলারি ক্লিনটনকে তাঁর ব্যক্তিগত কম্পিউটারের সার্ভার সমর্পণ করতে আনুষ্ঠানিকভাবে অনুরোধ জানিয়েছে। তিনি এতে অস্বীকৃতি জানালে কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদ তার ওপর চাপ দেয়ার পদক্ষেপ নিতে পারে বলে কমিটি সতর্ক করে দিয়েছে। ওই কমিটির চেয়ারম্যান রিপাবলিকান ট্রেগাডডি হিলারির এ্যাটর্নির কাছে পাঠানো এক চিঠিতে সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে পরীক্ষার জন্য সার্ভারটি কোন নিরপেক্ষ, পৃথক ও স্বতন্ত্র তৃতীয় পক্ষের কাছে তুলে দেয়ার অনুরোধ জানান। চিঠিটি শুক্রবার প্রকাশ করা হয়। খবর ফক্সনিউজ ও ইয়াহুনিউজের।

কংগ্রেস কমিটির ওই অনুরোধের ফলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী থাকাকালে হিলারির এক ব্যক্তিগত ই-মেইল এ্যাড্রেস ব্যবহার নিয়ে অনুসন্ধান আরও জোরদার হলো। হিলারি ২০০৯-১৩ সালে দেশের শীর্ষ কূটনীতিক থাকাকালে সরকারী ব্যবস্থার স্থলে এক ব্যক্তিগত এ্যাড্রেস ও ই-মেইল সার্ভার ব্যবহারের কারণে চাপের মুখে পড়েছেন। ওই তথ্য ফাঁস হওয়ার ফলে লিবিয়ার বেনগাজিতে ২০১২ সালে এক মার্কিন স্থাপনায় সংঘটিত এক হামলার বিষয়ে তদন্ত কাজে আরও উৎসাহের সঞ্চার হয়েছে। রিপাবলিকান নিয়ন্ত্রিত প্রতিনিধি পরিষদের এক কমিটি এ তদন্ত চালাচ্ছে।

হিলারি ক্লিনটন ওই হামলা ঠেকানোর জন্য যথেষ্ট ব্যবস্থা নেননি বলে রিপাবলিকানরা অভিযোগ করে থাকেন। গাডডি তাঁর বৃহস্পতিবারের ঐ চিঠিতে বলেন যে, হিলারিকে অবশ্যই ৩ এপ্রিলের মধ্যে জবাব দিতে এবং সার্ভার সমর্পণ করতে সম্মত হতে হবে। অন্যথায়, গাডডি সেটি সংগ্রহের জন্য অতিরিক্ত কী কী পদক্ষেপ নেয়া যায়, তা নিয়ে প্রতিনিধি পরিষদের স্পীকার জন বোয়েনারের সঙ্গে কথা বলবেন।

কমিটির ডেমোক্রেটিক সদস্যরা হিলারির প্রেসিডেন্ট পদে প্রার্থী হওয়ার আকাক্সক্ষা থাকার প্রেক্ষাপটে গাডডিকে রাজনীতিচালিত হওয়ার দায়ে অভিযুক্ত করেন। ই-মেইল ইস্যুটি হিলারিকে আক্রমণ করতে রিপাবলিকানদের হাতে নতুন তথ্য তুলে দিয়েছে। হিলারিকে ২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্রেটিক পার্টির সম্ভাব্য অগ্রগামী প্রার্থী হিসেবে দেখা হয়। তবে তিনি এখনও তাঁর প্রার্থিতা আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করেননি।

হিলারি এরইমধ্যে হাজার হাজার পৃষ্ঠার সরকারী ই-মেইল পররাষ্ট্র দফতরে জমা দিয়েছেন। কিন্তু কংগ্রেসের অনেক রিপাবলিকান সদস্য চান, কোন নিরপেক্ষ ব্যক্তি তার ই-মেইল সার্ভার পরীক্ষা করুক এবং তিনি সব প্রাসঙ্গিক তথ্য জমা দিয়েছেন কিনা তা স্থির করুন।

গাডডি হিলারির সাবেক সহকর্মীদের ই-মেইলগুলো জমা দেয়ারও দাবি জানান। গাডডি বলেন, কমিটি নিজে হিলারির সার্ভারে পাওয়া কোন তথ্য ব্যক্তিগত পরীক্ষা করবে না, কিন্তু এর পরিবর্তে তিনি পররাষ্ট্র দফতরের ইনস্পেক্টর জেনারেল বা অন্য কোন নিরপেক্ষ কর্মকর্তা সেগুলো পরীক্ষা করুক বলে সুপারিশ করেন।